,

তুরস্কে অভ্যুত্থানচেষ্টার অভিযোগে আরো ৭ হাজার বরখাস্ত

তুরস্কে অভ্যুত্থানচেষ্টার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে আরো সাত হাজারেরও বেশি পুলিশ, সেনা ও মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। ওই অভ্যুত্থানচেষ্টার বর্ষপূর্তির এক দিন আগে শুক্রবার সর্বশেষ এই বরখাস্তের ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে গত বছরের ১৫ জুলাই ব্যর্থ অভ্যুত্থানে জড়িত থাকার অভিযোগে কর্তৃপক্ষ প্রায় ৫০ হাজার জনকে গ্রেপ্তার করেছে এবং এক লাখেরও বেশি মানুষকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করেছে।

রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, সর্বশেষ ঘটনায় সাত হাজার ৫৬৩ জনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৩৫০ অবসরপ্রাপ্ত সেনা অফিসার রয়েছেন, যাদের পদবি কেড়ে নেওয়া হয়েছে। অন্য একটি দৈনিক পত্রিকা জানিয়েছে, দুই হাজার ৩০০ পুলিশকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

ব্যর্থ অভ্যুত্থানের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী মুসলিম ধর্মগুরু ফেতুল্লাহ গুলেনকে দায়ী করা হয়ে থাকে। তবে তিনি অন্যান্য সময়ের মতো গত শুক্রবারও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। পেনসিলভানিয়া থেকে এক বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, ‘অভ্যুত্থানের সঙ্গে জড়িত থাকার ব্যাপারে আমার বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ করা হচ্ছে। এটা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে করা হচ্ছে। আমি আবারও বলছি, এই ঘৃণ্য বৈপ্লবিক অভ্যুত্থান এবং এর সঙ্গে জড়িতদের নিন্দা জানাচ্ছি। ’

১৫ জুলাইয়ের ব্যর্থ অভ্যুত্থানের ঘটনায় ২৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছিল। প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ানকে উচ্ছেদ করার জন্য সেনাবাহিনী একদিকে যেমন রাস্তায় ট্যাংক নামিয়েছিল, তেমনি আকাশে উড়ছিল বোমারু বিমান। তবে কর্তৃপক্ষ দ্রুত ঘটনার নিয়ন্ত্রণ নেয় এবং প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের সমর্থকরা রাস্তায় নেমে আসায় অভ্যুত্থানকারীদের পরিকল্পনা ভেস্তে যায়। ঘটনার পর প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ব্যাপক ধরপাকড় শুরু করেন। বিশেষ করে গুলেনের সমর্থকদের ওপর ধরপাকড়ের তাণ্ডবটা বেশি চলে। মানবাধিকারকর্মী ও পশ্চিমা দেশের সরকার তাঁর কর্মকাণ্ডকে ‘মাত্রাতিরিক্ত’ অভিহিত করে সমালোচনা শুরু করে। এ ঘটনায় গুলেন স্বাধীন তদন্ত দাবি করেন। সেই সঙ্গে নিরপরাধ ব্যক্তিদের ধরপাকড় করার সমালোচনা করেন।

গুলেন বলেছেন, ‘নিরপরাধ ব্যক্তিদের যাচ্ছেতাইভাবে আটকের ঘটনায় তুরস্কের গণতন্ত্রের ইতিহাসে সবচেয়ে খারাপ উদাহরণ তৈরি হচ্ছে। ’

গতকাল শুক্রবার অভ্যুত্থানের বর্ষপূর্তিতে বিশেষ আলোচনার জন্য সংসদ অধিবেশন শুরু হয়। এ অধিবেশনে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান যোগ দেবেন। রাত ২টায় ভাষণ দেবেন তিনি। গত ১৫ জুলাই রাত ২টায় বোমা হামলার মাধ্যমে শুরু হওয়া ব্যর্থ অভ্যুত্থানের সময়টাকেই ভাষণ দেওয়ার জন্য বেছে নিয়েছেন তিনি। এ সময় রাজধানীতে তাঁর প্রাসাদের বাইরে নিহতদের স্মরণে তৈরি করা স্মৃতিসৌধ উম্মুক্ত করা হবে। প্রথম বছরপূর্তিতে তুরস্কজুড়ে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। দিনটি উপলক্ষে ইস্তাম্বুলের রাস্তায় বিশাল বিশাল বিলবোর্ড-পোস্টার টানানো হয়েছে, সেসবে অভ্যুত্থানবিরোধী জনগণকে সেনাবাহিনীর সঙ্গে লড়াই করতে দেখা যায়।

ইস্তাম্বুলের বসফোরাস সেতুর যেখানে জনগণ অভ্যুত্থানের চেষ্টাকারী বিদ্রোহী সেনাদের মোকাবেলা করেছে, সেখানেও অন্য এক শোভাযাত্রায় এরদোয়ানের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।   সূত্র : এএফপি, বিবিসি।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

সম্পাদক : কবীর আহমদ সোহেল

সম্পাদক কর্তৃক প্রগতি প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিঃ ১৪৯ আরামবাগ,ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত। বার্তা ও বাণিজ্যিক কাযালয়: ২০৭/১ ফকিরাপুল, আরামবাগ , মতিঝিল, ঢাকা-১০০০।

সিলেট অফিস: ২৩০ সুরমা টাওয়ার (৩য় তলা)
ভিআইপি রোড, তালতলা, সিলেট।
মোবাইল-০১৭১২-০৩৩৭১৫,০১৭১২-৫৯৩৬৫৩

E-mail: provatbela@gmail.com,

কপিরাইট : দৈনিক প্রভাতবেলা.কম

শিরোনাম :
সিসিক নির্বাচন: নানা কথা, নানা গুজব আরিফকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার নির্দেশ খালেদার সাংবাদিক আফতাবের ঘুষ গ্রহণ: অডিও ভাইরাল ’ হাসিনার অধীনে সুষ্ঠ নির্বাচন হবেনা, হতে পারে না’- খালেদা তিনটি গাড়ি নয়, পরিত্যাক্ত অংশবিশেষ : মেয়র আরিফ মুক্তিপণের টাকাসহ ৭ গোয়েন্দা পুলিশ আটক এমকে আনোয়ারের বাসায় যাচ্ছেন খালেদা বঙ্গবন্ধুর সমর্থনের আন্দোলনে আনোয়ারের ভূমিকা ছিল সহনীয় ‘মায়ানমারকে রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে হবে..” সুষমা সান্নিধ্য লাভে সোনারগা’র পথে খালেদা মিশা সওদাগরের বাড়িতে তারকাদের মিলনমেলা রিমান্ড শেষে ২০ ছাত্রীসংস্থা নেত্রী কারাগারে অবিরাম বৃষ্টিতে সিলেটে জনজীবন বিপর্যস্ত বৈরী আবহাওয়া: লাগাতার বৃষ্টি চান্দাই ছাহেববাড়ীর উদ্যোগে রোহিঙ্গা শরনার্থিদের ত্রাণ প্রদান রোহিঙ্গা ইস্যুকে আড়াল করতে বাংলাদেশের সাথে যুদ্ধ চায় মিয়ানমার কারা এই ভাগ্যাহত রোহিঙ্গা? রোহিঙ্গাদের মতো পরিস্থিতি বাঙালীদেরও হতে পারে আরাকানে গণহত্যা বন্ধের দাবীতে সিলেটে বিক্ষোভ রোহিঙ্গা শরনার্থীদের যেমন দেখেছি উখিয়ায় মানবতার বিভৎস চেহারা ৭ খুন মামলা:তারেক সাঈদ, নূর হোসেনসহ ১৫ জনের মৃত্যুদণ্ড বহাল দুদকে প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ১২৬ অভিযোগ ‘সমাজে কী হচ্ছে, তা আমাদের টাচ করে’ প্রধান বিচারপতির পদত্যাগে আল্টিমেটাম কাজিরবাজার সেতুতে আহত মোটরসাইকেল রাইডারের মৃত্যু মোসাদ্দেক আউট, মমিনুল ইন নায়করাজ রাজ্জাক আর নেই নন্দিত নায়কের প্রত্যাবর্তন জৈন্তাপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় ২ জনের প্রাণহানি বর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলে জৈন্তাপুরে ফের বন্যা ফরিদীর সাথে থাকার মত পরিস্থিতি ছিল না: সুবর্ণা মুস্তাফা সুনামগঞ্জে কিশোরীকে গণধর্ষণ, যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার আজহার মিয়ার মৃত্যুতে নাচনের শোক ৪০ বছর ধরে ‘বানর নাচ’ই যার উপার্জন ক্যান্সার জয়ের স্বপ্নে বিভোর পপি আক্তার কাতার সংকট নিরসনে: সৌদি থেকে কুয়েতে এরদোগান ত্রাণ না পাওয়ার অভিযোগ করায় কান ধরে টানাহেঁচড়া ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৩০টি স্বর্ণের বার জব্দ তিন নেতার বক্তব্যে বিএনপিতে তোলপাড় এইচএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার ৬৮. ৯১ মেয়রের উপস্থিতিতে এলাকাবাসীর সাথে কাউন্সিলরের অশুভ আচরন কলকাতার দৃষ্টিতে সেরা বাঙালি মাশরাফি ড. ফরাসউদ্দিন অর্থমন্ত্রী হচ্ছেন? জৈন্তাপুরে ছাত্রদলে দু’পক্ষের সংঘর্ষ ভাংচুর তাহসান- মিথিলার ডিভোর্স এর অন্তরালে .. খসরু প্রেসিডিয়াম সদস্য,রেজাউল আইন সম্পাদক বাচসাস নির্বাচন: রহমান নিশান প্যানেলের জয় ইউএনও তারেক সালমান গ্রেফতার ঘটনায় মাঠ প্রশাসনে ক্ষোভ:ডিসি- এসপির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা সুন্দর হাতের লেখায় নোবেল জয়