,

ব্যক্তি আয় করসীমা অপরিবর্তিত

প্রভাতবেলা প্রতিবেদকঃ ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যক্তি আয় করসীমা অপরিবর্তিত থাকছে। যাদের বার্ষিক আয় ২ লাখ ৫০ হাজার টাকার কম, তাদের কোনো কর দিতে হবে না।

 

এছাড়া নারী ও ৬৫ বছর বা তদূর্ধ্ব ৩ লাখ, প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ৪ লাখ ও গেজেটভুক্ত মুক্তিযোদ্ধাদের ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা বহাল রয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার (০৭) জাতীয় সংসদে উত্থাপিত বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী চার লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট পেশকালে বলেন, বাজেটে ব্যক্তি করদাতাদের আয়ের সীমা ২ লাখ ৫০ হাজার টাকার রাখার প্রস্তাব করছি। একই সঙ্গে নারী ও ৬৫ বছর কিংবা তার বেশি বয়স্কদের ক্ষেত্রে ৩ লাখ, প্রতিবন্ধীদের জন্য ৩ লাখ ৭৫ হাজার এবং মুক্তিযোদ্ধ‍াদের ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত করমুক্ত আয়ের সীমা রাখার প্রস্তাব করছি।

এর আগে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ব্যক্তিশ্রেণির ক্ষেত্রে করমুক্ত আয়সীমা ২ লাখ ২০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা করা হয়েছিল।

 

এর আগে অর্থমন্ত্রী প্রথা অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংসদ অধিবেশন কক্ষে যান। পরে অনুমতি নিয়ে প্রথমে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট পেশ করেন। এরপর শুরু করেন ২০১৮-১৯ সালের প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন।

এর আগে মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পর ওই প্রস্তাবে সই করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

 

২০১৮-১৯ অর্থবছরের মূল বাজেটের আকার বাংলাদেশের মোট জিডিপির ১৮.৩ শতাংশ। গতবছর প্রস্তাবিত বাজেট ছিল জিডিপিরি ১৮ শতাংশ। এবারের বাজেটে উন্নয়ন ব্যয় ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭৯ হাজার ৬৬৯ কোটি টাকা; যার ১ লাখ ৭৩ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করা হবে সরকারের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (এডিপি)।

 

মুহিত বলেন, সার্বিক বিবেচনায় আমি আগামী বছরে করমুক্ত আয়ের সাধারণ সীমা ও করহার অপরিবর্তিত রাখার প্রস্তাব করছি। তবে কোনো ব্যক্তি-করদাতার প্রতিবন্ধী সন্তান বা পোষ্য থাকলে প্রত্যেক সন্তান বা পোষ্যের জন্য তার করমুক্ত আয়সীমা ৫০ হাজার টাকা করে বাড়ানোর সুপারিশ করেন মুহিত।

তবে এর আগে অর্থবছরের মতোই ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা থেকে চার লাখ টাকা পর্যন্ত ১০ শতাংশ, ৪ থেকে ৫ লাখ টাক‍া পর্যন্ত ১৫ শতাংশ, আবার ৫ থেকে ৬ লাখ টাকা পর্যরন্ত ২০ শতাংশ এবং ৬ থেকে ৩০ লাখ পর্যন্ত ২৫ শতাংশ কর এবং ৩০ লাখ টাকার বেশি হলে অতিরিক্ত আয়ের ওপর ৩০ শতাংশ হারে কর আরোপ করার প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী।

ওই হার বহাল রাখার পক্ষে যুক্তি দিয়ে বজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, এ বছরে করমুক্ত আয়ের সাধারণ সীমা ছিল ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা। নারী করদাতাসহ বিভিন্ন শ্রেণির করদাতাদের জন্য এ সীমা কিছুটা বেশি ছিল।

 

অর্থমন্ত্রী বলেন, করমুক্ত আয়ের সীমা কী হবে; তা নিয়ে প্রচুর আলোচনা হয়। আমরা পর্যালোচনা করে দেখেছি যে উন্নত দেশগুলোতে করমুক্ত আয়সীমা সাধারণভাবে মাথাপিছু আয়ের ২৫ শতাংশের নিচে থাকে। উন্নয়নশীল দেশগুলোতে করমুক্ত আয়সীমা সাধারণত মাথাপিছু আয়ের সমান বা তার কম থাকে। কিন্তু বাংলাদেশে করমুক্ত আয়ের সীমা মাথাপিছু আয়ের প্রায় দ্বিগুণের মতো। অর্থাৎ আমাদের করমুক্ত আয়ের সীমা বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটের তুলনায় অনেক বেশি। করমুক্ত আয়ের সীমা বেশি হলে কর প্রদানে সক্ষম বিপুলসংখ্যক ব্যক্তি করজালের বাইরে থেকে যান। এতে করের ভিত্তি দুর্বল থাকে।

0Shares

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক : কবীর আহমদ সোহেল

সম্পাদক কর্তৃক প্রগতি প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিঃ ১৪৯ আরামবাগ,ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত। বার্তা ও বাণিজ্যিক কাযালয়: ২০৭/১ ফকিরাপুল, আরামবাগ , মতিঝিল, ঢাকা-১০০০।

সিলেট অফিস: ২৩০ সুরমা টাওয়ার (৩য় তলা)
ভিআইপি রোড, তালতলা, সিলেট।
মোবাইল-০১৭১২-০৩৩৭১৫,০১৭১২-৫৯৩৬৫৩

E-mail: provatbela@gmail.com,

কপিরাইট : দৈনিক প্রভাতবেলা.কম

শিরোনাম :
ক্রাইস্টচার্চ ট্রাজেডি: নিহতের সংখ্যা ৪৯ স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে শাহাদাত বরণ করলেন সিলেটের পারভীন হামলাকারী অস্ট্রেলিয়ান শ্বেতাঙ্গ জঙ্গি বাংলাদেশ দল নিরাপদে ৫মিনিট আগে পৌঁছলে বাংলাদেশ দলের সর্বনাশ নিউজিল্যান্ডে মসজিদে শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসীর গুলি: নিহত ৪০ ডায়াবেটিস কিডনির সমস্যায় কাঁচা পেঁপে ডাকসু ভিপি গণভবনে যাচ্ছেন শনিবার নাসিমা চৌধুরীর সম্মাননা, সংবর্ধনা মদিনা মার্কেটে ছাত্রলীগ কর্মী খুন ডাকসুঃ চমকের পর চমক টিএসসিতে ডাকসু ভিপি নুরুলের উপর ছাত্রলীগের হামলা মুফতি জাকারিয়ার জানাযায় লাখো মানুষের উপস্থিতি পারবে কি নুরু ইতিহাস হতে? এবার পুনর্নির্বাচনের দাবি ছাত্রলীগের ভিপি হওয়ার পর যা বললেন নুরুল নুরুল ভিপি, রাব্বানী জিএস ডাকসু : ১৫ হলের ফলাফল শামসুন্নাহার হলে ভিপি ইমি,জিএস ছপা কুয়েত মৈত্রী হলের প্রাধ্যক্ষ বরখাস্ত কুয়েত মৈত্রী হলে সিলযুক্ত ব্যালট রোকেয়া হল থেকে ট্রাঙ্কভর্তি ব্যালটপেপার উদ্ধার ভিপি প্রার্থী নুরের ওপর হামলা ছাত্রলীগ ছাড়া সব প্যানেলের ডাকসু বর্জন দরগাহ মাদ্রাসার মুহতামিম মুফতি জাকারিয়ার ইন্তেকাল ৭ মার্চের প্রাসঙ্গিকতা ও অনিবার্যতা ডিএনসিসি মেয়র আতিকের শপথ সুলতান মনসুর শপথ নিলেন হজ্ব পালনকালে সেলফি তোলা হারাম কানাইঘাট থানায় ফাহিমা- রেজওয়ানের বিয়ে বিএসএমএমইউতে নেয়া হবে খালেদাকে স্বচ্ছ প্রক্রিয়ার বিচার হলে সব মক্কেল নির্দোষ হতেন দুনিয়ার সমস্ত পথ বন্ধ হয়ে যায় কিন্তু আল্লাহর পথ সর্বদাই খোলা থাকে ‘রাজনীতি এখন মানুষের জন্য করা হয় না’ বাইপাস সার্জারি করা হবে কাদেরের কাদের আর খালেদার চিকিৎসা এক নয় মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে কাদের ইউনাইটেড হাসপাতালে মাওলানা হাবীব মাওলানা হাবীবের অবস্থা সংকটাপন্ন: ঢাকায় রওয়ানা সিসিকে পরামর্শক ব্যয়’র নামে লুটপাট: ক্ষুব্ধ পরিকল্পনামন্ত্রী বিজ্ঞাপনী পেরেকে আক্রান্ত নির্বাক বৃক্ষ ১০১ টাকা দেনমোহরে পলাশকে বিয়ে করেন সিমলা ঋতুস্রাবের পাঠ প্রাথমিক পর্যায় থেকে বাধ্যতামূলক ফুটবল তারকা সালাহ যেখানেই যান, সাথে থাকে পবিত্র কোরআন কাশ্মীরে বোমাবর্ষণ করেছে ভারত ডাকসু : ছাত্রদলের প্যানেলে নেই কেন্দ্রীয় নেতারা সুন্দরবনে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৪ জলদস্যু নিহত এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু ১ এপ্রিল ডাকসু নির্বাচনে প্রগতিশীল ছাত্র জোটের প্যানেল ঘোষণা ডাকসু : ছাত্রলীগের বিদ্রোহী প্যানেল ঘোষণা