সংসদে বর্তমান সরকারের শেষ বাজেট পাস

প্রকাশিত: 5:25 PM, June 28, 2018

প্রভাতবেলা প্রতিবেদকঃ  জাতীয় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে চার লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট পাস করা হয়েছে।

প্রায় ৫০ ঘণ্টা আলোচনার পর এই বাজেট পাস হয়। নতুন এই অর্থবছর আগামী ১ জুলাই রোববার থেকে কার্যকর হবে। এ বাজেট আগামী ১ জুলাই থেকে কার্যকর হবে।

 

বৈষম্য দূর করে টেকসই উন্নয়ন করার লক্ষ্যে এ বাজেট পাস হয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার (২৮ জুন) সকাল সোয়া ১০টায় ২১তম অধিবেশনে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ৭১ হাজার ৮৩৩ কোটি ৮২ লাখ ৯২ হাজার টাকা ব্যয়ের অনুমোদন দিয়ে নির্দিষ্টকরণ বিল ২০১৮ উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

 

এ বছরই আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের মেয়াদ পূর্ণ হচ্ছে। ফলে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটই বর্তমান সরকারের শেষ বাজেট।

আগামী বছর ২৯ জানুয়ারি সরকার দায়িত্ব গ্রহণের ৫ বছর পূর্ণ হবে। সংবিধানে সরকারের মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার পূর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করার বিধান থাকায় আগামী ডিসেম্বরের শেষ দিকে একাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আগামী বছরের ২৯ জানুয়ারি সরকারের দায়িত্ব গ্রহণের পাঁচ বছর পূর্ণ হবে।

 

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সরকারি ও বিরোধী দলের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে নির্দিষ্টকরণ বিল পাসের মধ্য দিয়ে বাজেট প্রণয়নের কাজ শেষ হয়েছে।

এর আগে মঞ্জুরি দাবির ওপর আলোচনার সুযোগ নিয়ে জাতীয় পার্টি ও স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা শিক্ষা খাতে অনিয়ম-দুর্নীতি, অবকাঠামোগত উন্নয়নে ব্যর্থতা ও রেল খাতের অব্যবস্থাপনার পাশাপাশি সরকারের বিভিন্ন কার্যক্রমের কঠোর সমালোচনা করেন।

 

প্রস্তাবিত বাজেটের সঙ্গে পাস হওয়া বাজেটের তেমন পার্থক্য নেই। টানা দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর আওয়ামী লীগ সরকারের শেষ ও পঞ্চম বাজেট এটি।

 

এবারের বাজেটে ৫৯টি মন্ত্রণালয়ের মঞ্জুরির দাবির বিপরীতে ৪৪৮টি ছাঁটাই প্রস্তাব আনা হয়।

অর্থমন্ত্রী ২৫ শতাংশ ব্যয় বাড়িয়ে ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেছিলেন।

 

১১ জুন থেকে ২৭ জুন পর্যন্ত প্রস্তাবিত ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের বাজেটের ওপর সরকারি ও বিরোধী দলের সদস্যরা সাধারণ আলোচনা করেন।

 

১৮-১৯ অর্থবছরে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ লাখ ৩৯ হাজার ২৮০ কোটি টাকা, যা জিডিপির ১৩ দশমিক ৪ শতাংশ।

 

  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ