,

ভূয়া তালাকনামায় প্রতারিত শাহেদা

সুয়েবুর রহমান ,প্রভাতবেলা সংবাদদাতাঃ সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার নিদনপুর মোল্লা গ্রামের জহুর উদ্দিন প্রথম স্ত্রী শাহেদা আক্তার খুশিকে ভূয়া তালাকনামা পাঠিয়ে প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছিলেন।

সেই জহুর উদ্দিনের নির্যাতিত স্ত্রী ও সন্তান আজ ছন্নছাড়া  জীবনযাপন করছেন। একমাত্র সন্তানের ভরণপোষণতো দূরের কথা কোন খোঁজখবর রাখছেন না জহুর। এদিকে অর্থের অভাবে ছেলের লেখাপড়া চালিয়ে নিতে মা শাহেদা আক্তার খুশিকে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

 

নির্যাতিত শাহেদা আজও ন্যায় বিচার প্রত্যাশায় আছেন। তার ছেলে সন্তান নিয়ে সামাজিকভাবে বেঁচে থাকার তাড়নায় মাথা ঠুকে যাচ্ছেন।

 

জহুর উদ্দিন (৪০) মোল্লা গ্রামের মৃত আব্দুল হকের তৃতীয় সন্তান।

 

জহুর উদ্দিন এক অভিনব প্রতারণার মাধ্যমে প্রথম স্ত্রী’কে জাল ও ভূয়া তালাকনামা প্রেরণ করে কালবিলম্ব না করে পুনরায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

 

শুধু তাই নয় প্রথম স্ত্রী শাহেদা আক্তার খুশি’র সঙ্গে সংসার করা অবস্থায় একাধিক নারীর সঙ্গে অবৈধ্য সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন জহুর। এনিয়ে চলে খুশি ও জহুরের সংসারে টানাপোড়ন। ঝড়্গা ও অশান্তি।

 

এক পর্যায়ে জহুর তার অবৈধ্য সম্পর্ক জায়েজ করতে খুশি ও তাদের এক মাত্র সন্তানকে ফেলে চলে যান। এরপর আর কোন খোঁজখবর নেবার প্রয়োজন বোধ করেননি।

 

জহুরের প্রথম স্ত্রী অনেক সালিম বিচার বসিয়েও তার সংসার টিকিয়ে রাখতে পারেননি। বর্তমানে সন্তানের ভরণপোষণ করতে এই দুঃখিনী মাকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। অভাবের সংসারে একার জীবন চালানোই যেখানে দুরহ। সেখানে বর্তমান বাজারে সন্তানের লেখাপড়া ও আনুসাংগিক খরচ চালাতে খুশিকে দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াতে হচ্ছে।

 

অভিযোগকারী শাহেদা আক্তার খুশি,  দৈনিক প্রভাতবেলাকে জানান, ০৪/১১/২০০৪ তারিখে শরিয়ত মোতাবেক জহুর উদ্দিনের সঙ্গে তার বিবাহ হয়।

বিয়ের পর তিনি দীর্ঘ আট বছর তিনি চাকুরীতে নিয়োজিত ছিলেন। এসময় তার সংসার ভালোই চলছিল। স্বামীর কথায় চাকুরী জীবনের উপার্জনের সমস্ত অর্থদিয়ে সুপাতালা এলাকায় শাহপরান কমিউনিটি সেন্টারের পার্শ্বে দুলহান নামের একটি বিউটি পার্লারের ব্যবসায় জড়িয়ে যান তিনি।

 

বিউটি পার্লারের মালিকানা স্বামী জহুর উদ্দিনের নামে। খুশি ছিলেন পরিচালনায়।

পার্লারের অতিরিক্ত কাজের চাপের কারনে দুজন মহিলা কর্মচারী নিয়োগ দেন তার স্বামী জহুর। এরপর থেকেই তাদের সংসারে অশান্তি প্রবেশ করে। কলহ, বিবাদ বাড়ে।  খুশি বলেন, ‘ তিনি যে (স্বামী) একজন নারী লোভি পাষণ্ড মানুষ ছিলেন আমি বুঝতেই পারিনি’।

 

অভিযোগকারীনি আরো বলেন, ‘জহুর বিয়ে করার প্রলোভন ও টাকার লোভ দেখিয়ে দোকানের কর্মচারীর সঙ্গে অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত হতেন’।

 

স্বামীর বিরুদ্ধে সবচেয়ে বড় অভিযোগ খুশির, পার্লারের আসা কাস্টমারদের ভিডিও মোবাইলে ধারন করে ব্ল্যাকমেইল করতেন। সেসংগে কর্মচারীদের দিয়ে নানা ধরনের অপকর্ম করাতেন। যার প্রত্যক্ষ সাক্ষী ছিলেন কাজল (২৬) নামের আর এক কর্মচারী।

 

স্বামীর এসমস্ত অপকর্মের প্রতিবাদ করায় আরো হিংস্র হয়ে উঠেন জহুর।

 

ঘটনার জের ধরে জহুর উদ্দিন প্রকাশ্যে স্ত্রী খুশিকে বলেন, তোর কারণে কাজলকে  তো পেলাম না। এখন তুই সুহানাকে (পার্লারের কর্মচারী) আমার সাথে বিয়ে দেবার ব্যবস্থা কর’।

 

তিনি রাজি না হওয়াতে জহুর উদ্দিন তার প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারধর করেন এবং বলেন, ‘বিয়ে না দিলে আমি মরে গিয়ে, তোকে সহ তোর বাপের বাড়ীর সবাইকে ফাঁসাবো। তোর ছেলেকে ও মেরে ফেলবো’।

 

পরদিন স্ত্রী খুশিকে মারধর করে নিজ গৃহ থেকে বেড় করে দেন জহুর।

 

নিরুপায় হয়ে স্ত্রী পরিবারের সাহায্য নিয়ে বিয়ানীবাজার থানায় স্বামীর নামে সাধারন ডাইরি করেন।

এলাকার গণ্যমান্য ও মুরব্বী ব্যক্তি চকই মিয়া সমস্ত ঘটনা শুনে দু’জনের উপস্থিতিতে সালিসের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করে দেবার আশ্বাস দেন। এরপর মাস থেকে বছর পার হয়। সালিস তো দূরের কথা এ ব্যাপারে কেউ কোন কথা বলেনি জহুরকে।

 

তালাকনামা কিভাবে পাঠিয়েছেন জহুর জানতে চাইলে খুশি বলেন, সালিসের নামে আমাকে ঠকানোর কয়েক দিন পর আমার নামে একটি চিঠি আসে। আমার স্বামী নিজেই চিঠিটা প্রেরণ করেছিলেন। আমি আমার এক আত্মিয় উকিলের সাথে তালাকনামা নিয়ে যোগাযোগ করি। তিনি তালাকনামা ভূয়া বলে প্রমান করেন’।

 

অভিযোগকারীনি বলেন, ‘ তালাকনামায় আমার দেনমোহর ও বিয়ের তারিখ সঠিক নয় এবং সাক্ষীগণের নাম উল্লেখ রয়েছে কিন্তু তাদের কোন পরিচয় নাই। এছড়াও খোঁজ নিয়ে দেখি আমার ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং মেয়রের কাছে এধনের কোন নোটিশ পর্যন্ত আসেনি’।

 

জহুরের অবৈধ্য বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন করলে তিনি জানান, ‘তার সংসার করা কালীন সময়ে  (পার্লারের কর্মচারী) কাজল নামের এক মেয়ের সাথে অবৈধ সম্পর্ক ছিল। যার প্রমাণ আমার কাছে রয়েছে। এরপর আর এক কর্মচারী সুহানার (২৪) সাথে অবৈধ সম্পর্ক চালিয়ে যান’।

বর্তমানে জহুর সুহানকে অবৈধভাবে বিয়ে করে সংসার করছে। অবৈধ্যের সংসারে তাদের একটি পুত্র ও সন্তানও হয়েছে।

 

অভিযোগকারী শাহেদা আক্তার খুশি বলেন, সমস্ত ঘটনা বাদ দিলেও আমার ছেলে সন্তানের ভরণ-পোষণ ও ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তায় আছি। এজন্য আমি আইনী ব্যবস্থায় যাবো। অনেক সহ্য করেছি। এবার আইনি পদক্ষেপ গ্রহন করতে বাধ্য হচ্ছি’।

 

শাহেদা আক্তার বর্তমানে শাহী ঈদগাস্থ একটি বিউটি পার্লার পরিচালনা করছেন। তার একমাত্র ছেলে রেদুয়াল হোসেন রাব্বি (১৪) ঝেরঝরী মাদ্রাসায় ছাত্র।

 

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত জহুর উদ্দিনের  সঙ্গে বারবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাড়া পাওয়া যায়নি।

 

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • 29
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    29
    Shares

Leave a Reply

সম্পাদক : কবীর আহমদ সোহেল

সম্পাদক কর্তৃক প্রগতি প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিঃ ১৪৯ আরামবাগ,ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত। বার্তা ও বাণিজ্যিক কাযালয়: ২০৭/১ ফকিরাপুল, আরামবাগ , মতিঝিল, ঢাকা-১০০০।

সিলেট অফিস: ২৩০ সুরমা টাওয়ার (৩য় তলা)
ভিআইপি রোড, তালতলা, সিলেট।
মোবাইল-০১৭১২-০৩৩৭১৫,০১৭১২-৫৯৩৬৫৩

E-mail: provatbela@gmail.com,

কপিরাইট : দৈনিক প্রভাতবেলা.কম

শিরোনাম :
টেষ্ট অভিষেকে থাকছেন না সিলেটের লোকাল হিরোরা সুরমা নদীর তীরের স্থাপনা সরাতে ব্যবসায়ীদের মেয়রের আল্টিমেটাম জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার সংলাপে বসছে আওয়ামী লীগ-জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট জামায়াতের নিবন্ধন বাতিলের প্রজ্ঞাপন জারি খালেদা জিয়ার সাজার প্রতিবাদে সারাদেশে বিক্ষোভ মিছিল বিপিএল ষষ্ঠ আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফটে কে কোন দলে প্রধানমন্ত্রীকে ড. কামাল হোসেনের চিঠি সেই টেষ্ট হ্যাট্টিকম্যান অলক কাপালী সিলেটের টেষ্ট অভিষেকটা স্মরণীয় হয়ে থাকবে আশা অলক কাপালীর আরেকটিবার আওয়ামী লীগকে ভোট দিনঃ শেখ হাসিনা পুণ্যভূমি সিলেটে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল জিম্বাবুয়েকে ‘হোয়াইটওয়াশ’ করার স্বাদ নিলো টাইগাররা বিষধর সাপ রাসেল ভাইপারকে পিটিয়ে মেরে ফেলা হলো সাত দফার এক দফাও মানা হবে নাঃ ওবায়দুল কাদের নিবন্ধন ফিরে পাবার আশায় জামায়াতে ইসলামী সরকারকে মওদুদের হুশিয়ারী সিলেট সিক্সার্সের হয়ে খেলবেন বিতর্কিত ওয়ার্নার বিমানবাহিনী এগিয়ে যাচ্ছেঃ প্রধানমন্ত্রী সিলেটে ইয়াবাসহ যুবক আটক সিপিএল চ্যাম্পিয়ন ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্স ৩২ ধারা বহাল রেখে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে সংসদীয় কমিটি বাহরাইনকে ১০-০ গোলে উড়িয়ে শুভসূচনা বাংলাদেশের রোহিঙ্গাদের সাহায্য করতে ঢাকাকে সমর্থন দেবে দিল্লিঃ শ্রিংলা ৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডের চাকরিতে থাকছে না কোটা নির্বাচনের আগে বর্তমান সংসদ ভেঙে দেওয়াসহ ৫দফা দাবী উত্তরমুখী হয়ে লাভ নেই, ওখানে সাড়া দেওয়ার মতো কেউ নেই আইডিইবি সম্মেলন উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতলো মালদ্বীপ জুড়ীতে বাংলাদেশের খবর’র বর্ষপূর্তি উদযাপন মেডিকেল বোর্ডে খালেদার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের রাখা হয়নি শনিবার যুক্তফ্রন্ট-ঐক্য প্রক্রিয়ার যৌথ ঘোষণা আসছে সারাদেশে পালন করা হবে শেখ হাসিনার জন্মদিন সমাজসেবী আমিন আলীর ইন্তেকাল এবার স্বরচিত কবিতা পাঠ করলেন জগলুল হায়দার যশোরে সাবেক ফুটবল কোচ ওয়াজেদ গাজীর দাফন সম্পন্ন মন্ত্রণালয়ের কাছেই বিদ্যুৎ বিল পাওনা ৬৬৮ কোটি টাকা! কাভার্ডভ্যান পোড়ানোর মামলায় খালেদার জামিন নামঞ্জুর চলে গেলেন নওয়াজ শরীফের স্ত্রী কুলসুম রাজধানীর ১৪ হাসপাতাল বন্ধের নির্দেশ মৌসুমী, অপু ও ওমরসানি দুবাই যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের জবাবে ড. কামাল সংবিধান অনুযায়ী ডিসেম্বরে নির্বাচন হবে `এ কথা শুনেই মান্না, জুড়ে দেয় কান্না।’ বিকল্পধারা এখন স্বকল্প হয়ে গেছে ‘তিনিও আনকনটেস্টের এমপি’ আমরা তোমাদের কাছে কৃতজ্ঞ: ডা. বদরুদ্দোজা নির্বাচন নাও হতে পারে: ড. কামাল যাঁকে র‌্যাঙ্ক দিতে বাধ্য হন পাক জেনারেল “ কোনোরকম বিশৃঙ্খলা সহ্য করা হবে না’- হাসিনা