,

শনির আখড়ায় ট্রাকচাপায় আহত শিক্ষার্থী শঙ্কামুক্ত

প্রভাতবেলা প্রতিবেদক,ঢাকা: রাজধানীর শনির আখড়ায় বুধবার সকালে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় পিকআপ ভ্যান চাপায় আহত ছাত্র শঙ্কামুক্ত রয়েছেন।  ঘটনার পরে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ সাইনবোর্ড এলাকার প্রোঅ্যাকটিভ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার পর বিকেলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

আহত এই শিক্ষার্থীর নাম ফয়সাল মাহমুদ। তিনি নারায়ণগঞ্জের সরকারি তোলারাম কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র। আহত হওয়ার পর তাকে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কোমরসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত থাকলেও তিনি আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

হাসপাতাল সূত্র জানিয়েছে, বেলা ১২টার দিকে ফয়সাল হাসপাতালে ভর্তি হয়। তার বাম পায়ে ফ্র্যাকচার ছিল। কোমরেও ব্যথা পেয়েছে। তবে ফয়সাল শঙ্কামুক্ত রয়েছে। বিকেলে তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

বর্তমানে ফয়সাল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইউরোলজি বিভাগের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন আছেন। ওই ওয়ার্ডের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাসুদ রাতে প্রভাতবেলাকে বলেন, ফয়সালের প্রস্রাবের থলেতে রক্তক্ষরণ হয়েছে। আমরা তাঁকে আলট্রাসনোগ্রামসহ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা দিয়েছি। বিস্তারিত পরে জানা যাবে, তাঁর চিকিৎসা চলছে।

বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার প্রতিবাদে রাজধানীর শনির আখড়া এলাকায় সড়কে আন্দোলনে নেমেছিলেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরা। এ সময় চালকের লাইসেন্স পরীক্ষার জন্য একটি ট্রাককে থামতে বলেন তারা। কিন্তু ট্রাকটি না থেমে দ্রুতগতিতে ছুটতে থাকে। তখন এক শিক্ষার্থী রাস্তায় পড়ে যান। তার ওপর দিয়েই চলে যায় ট্রাকটি।

বুধবার সকালের এ ঘটনার ভিডিওচিত্র ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ওই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর গুজবও ছড়িয়ে পড়ে। তবে পরে জানা যায়, আহত হয়ে ওই শিক্ষার্থী প্রো-অ্যাকটিভ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তিনি বর্তমানে আশঙ্কামুক্ত।

ঢাকা মহানগর পুলিশের ডেমরা জোনের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার ইফতেখায়রুল ইসলাম প্রভাতবেলা’কে বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। হাসপাতালে আহত শিক্ষার্থীর অবস্থানও জানা গেছে। তার চিকিৎসার তদারকি করা হচ্ছে। পাশাপাশি পালিয়ে যাওয়া ট্রাকটি শনাক্ত করে এর চালক-হেলপারকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ঘটনার সময় মোবাইল ফোনে ধারণ করা ভিডিওতে দেখা যায়, একটি নীল-সাদা রঙের ট্রাক ধীরগতিতে এগোচ্ছে। ট্রাকের মালপত্র রাখার অংশে কয়েকজন দাঁড়িয়ে আছেন। কেউ আবার ওঠার চেষ্টা করছেন। ট্রাকের চারপাশে ভিড় করে আছেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। তারা চালকের উদ্দেশে কিছু বলছেন। সাদা শার্ট পরা ও পিঠে কালো ব্যাগ ঝোলানো শিক্ষার্থী ফয়সাল লাঠি হাতে ট্রাকটির সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। হঠাৎ ট্রাকটি গতি বাড়িয়ে সামনের দিকে গেলে তিনি পেছানোর চেষ্টা করেন এবং একপর্যায়ে রাস্তায় পড়ে যান। তখন তার ওপর দিয়ে চলে যায় ট্রাকটি। শিক্ষার্থীরা ট্রাকটির পিছু ধাওয়া করলেও আটকাতে পারেননি।

ভিডিওটি দেখে তাৎক্ষণিকভাবে মনে হয়, ফয়সাল ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়েছেন। এ কারণে ভিডিওচিত্রের পাশাপাশি তার মৃত্যুর গুজবও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। এতে আন্দোলনকারীরা আরও ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। দোষী চালকের শাস্তির দাবিতে স্লোগান দেন তারা। পুলিশ ও সংবাদকর্মীরা ঘটনাস্থলে গেলে বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই জানাতে পারেননি ফয়সালকে কোথায় নেওয়া হয়েছে। এমনকি প্রথমে তার নাম-ঠিকানাও জানা যায়নি।

সাইনবোর্ডের প্রো-অ্যাকটিভ হাসপাতালের ব্যবস্থাপক ডা. সালাহউদ্দিন ভূঁইয়া দুপুরে প্রভাতবেলা’কে জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ফয়সাল মাহমুদকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার বাম কোমরের হিপ জয়েন্টে ফ্র্যাকচার (হাড়ে চিড়) হয়েছে। এ ছাড়া পেট ও ঠোঁটে আঘাত রয়েছে। শরীরের ভেতর কোথাও রক্তক্ষরণ হচ্ছে কি-না জানার জন্য সিটি স্ক্যান করাতে হবে। প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তাকে পুরুষ ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। তার মুখ দিয়ে খাওয়া আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে। সে আশঙ্কামুক্ত হলেও অন্তত চার থেকে ছয় সপ্তাহ তাকে বিছানায় বিশ্রামে থাকতে হবে।

আহত ছাত্রের মা কাকলী আক্তার প্রভাতবেলা’কে জানান, ফয়সাল পরিবারের সঙ্গে রাজধানীর কদমতলীর মোহাম্মদবাগ এলাকার বাসায় থাকেন। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে তিনি বড়। তাদের বাবা শামসুল হক বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। বুধবার সকালে ফয়সাল কলেজে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হন। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শনির আখড়ায় তাকে ট্রাক চাপা দেয় বলে তিনি জানতে পেরেছেন। পরে লোকজন তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ফয়সালের বাবা শামসুল হক জানান, মতিঝিলে থাকার সময় তিনি ছেলের দুর্ঘটনার খবর পান। এরপর ছুটে যান হাসপাতালে। ছেলের সুস্থতার জন্য সবার দোয়া চান তিনি।

পুলিশ জানায়, ঘটনাস্থলের আশপাশের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হচ্ছে। ট্রাকটির নম্বর জানারও চেষ্টা চলছে। এর মাধ্যমে দোষী চালককে শনাক্ত করা যাবে। পুলিশ এক্ষেত্রে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। দোষীরা কোনোভাবেই ছাড় পাবে না।

 

0Shares

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক : কবীর আহমদ সোহেল

সম্পাদক কর্তৃক প্রগতি প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিঃ ১৪৯ আরামবাগ,ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত। বার্তা ও বাণিজ্যিক কাযালয়: ২০৭/১ ফকিরাপুল, আরামবাগ , মতিঝিল, ঢাকা-১০০০।

Designed by ওয়েব হোম বিডি

সিলেট অফিস: ২৩০ সুরমা টাওয়ার (৩য় তলা)
ভিআইপি রোড, তালতলা, সিলেট।
মোবাইল-০১৭১২-০৩৩৭১৫,০১৭১২-৫৯৩৬৫৩

E-mail: provatbela@gmail.com,

কপিরাইট : দৈনিক প্রভাতবেলা.কম

শিরোনাম :
মসজিদের বারান্দায় মুশফিকের পড়াশোনা ছবি ভাইরাল ৭২ বছর পর সিসিক’র ১০ কোটি টাকার জমি উদ্ধার শ্রীলংকায় সর্বোচ্চ নিরাপত্তা পাচ্ছে টাইগাররা মা ও স্বামীর সঙ্গে প্রিয়াঙ্কার ধূমপান, সমালোচনার ঝড় বিয়ের প্রলোভন দৈহিক মিলন, স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা বিপদসীমার উপরে সুরমা-কুশিয়ারার পানি ভিডিও বার্তায় যা বললেন প্রিয়া সাহা প্রিয়া সাহাকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ তরুণীর সাথে দৈহিক সম্পর্ক ও ভিডিও ধারণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার  পেঁয়াজ, রসুন ও আদার দাম বাড়ছেই রিফাত হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার মিন্নির গাইবান্ধায় ৪ লাখ পরিবার পানিবন্দি, ৪’শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ প্রেমের টানে আমেরিকান নারী এখন লক্ষ্মীপুরে মাছ উৎপাদনে আমরা প্রথম হবো : প্রধানমন্ত্রী জিএম কাদের জাতীয় পার্টির নতুন চেয়ারম্যান ইলিশের উৎপাদন ৫ লাখ টন ছাড়িয়েছে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ, পাসের হার ৭৩.৯৩ এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ আজ কারও যোগসাজসে আমার মেয়েকে গ্রেফতার করা হয়েছে: মিন্নির বাবা জামায়াত নিয়ে যারা বিতর্ক সৃষ্টি করে তারা জাতীয় ঐক্য চায় না: কর্ণেল অলি বৌভাতের দিন দাফন হলো বর কনেসহ ১১ জনের রংপুরে এরশাদের দাফন সম্পন্ন রিফাত হত্যা: জিজ্ঞাসাবাদের পর স্ত্রী মিন্নি গ্রেফতার তিন পদ নিয়ে বিপাকে জাতীয় পার্টি মাস্টার প্ল্যান প্রস্তুতের ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর ‘২১ সাল থেকে বিদ্যালয়-মাদ্রাসায় কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক: দীপু মনি এরশাদের প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত: ৪র্থ জানাযা ১৬ জুলাই রূপকথার ফাইনালে চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড চলে গেলেন এইচএম এরশাদ বজ্রপাতে ১৬ জনের মৃত্যু ইমরান মন্ত্রী, ইন্দিরা প্রতিমন্ত্রী আ,ফ,ম কামাল আর নেই দুধে চার ধরণের ক্ষতিকর মাত্রার অ্যান্টিবায়োটিক কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪ সাবেক স্বামীসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মিলার মামলা বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক অনন্য উচ্চতায়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ১০ বছরে বিএসএফের হাতে ২৯৪ জন নিহত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অস্ট্রেলিয়াকে উড়িয়ে দিয়ে ২৭ বছর পর ফাইনালে ইংল্যান্ড কেউ পাশে নেই, সবাই সমালোচনায় মুখর:মিন্নি গুডবাই ইন্ডিয়া, ফাইনালে নিউজিল্যান্ড ‘কামালের ব্যর্থতা ,ফখরুলের দ্বিচারিতা’ বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এখন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ছাদ ঘুরিয়ে দেখানোর কথা বলে ধর্ষণ করা হয় সায়মাকে ব্যর্থতার সব দায় আমার : মাশরাফি মুখে রক্ত, ঠোঁটে কামড়ের দাগ, ক্ষতবিক্ষত যৌনাঙ্গ, এ কেমন স্বাধীন বাংলাদেশ! মাওলানা মাহবুবের ইন্তেকাল সিলেট- তামাবিল সড়ক অবরোধ বাংলাদেশের স্বপ্নভঙ্গ, সেমিফাইনালে ভারত দুর্দান্ত সুযোগ মিস করলেন তামিম ধর্মের কারণে বলিউড ত্যাগের ঘোষণা জায়রার