,

সিলেটের টেষ্ট অভিষেকটা স্মরণীয় হয়ে থাকবে আশা অলক কাপালীর

মাকসুদা লিসাঃ ইতিহাস সাক্ষী হয়ে থাকে। আলো ঝলমল। স্বর্ণাক্ষরে লিখা। রেকর্ডের পাতায়। তোলা থাকে। তার অর্জন। সাফল্য। স্বীকৃতি। ভুলে যায় কিভাবে বাংলাদেশ। সময়ের আবর্তে ও বাস্তবতায় তার ক্যারিয়ার আন্তর্জাতিক অঙ্গন হতে দূরে সরে গেছে। কিন্তু তার সেই সাফল্য এখনও উজ্জলতা ছড়িয়ে যায়। আবেগী করে তোলে বাংলার মানুষকে।

 

যে কোন প্রথম স্বীকৃতি নিয়ে আসে আনন্দের বাঁধ ভাঙ্গা উচ্ছাস। অলক কাপালী সেই নাম। যার হাত ছুঁয়ে এসেছিল টেষ্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের প্রথম হ্যাট্টিক।

 

সময় গড়িয়েছে অনেক। ঝড় ঝাপটা। জাতীয় দলে আসা যাওয়া। আপেক্ষ। সবকিছু পেছনে ফেলে সামনে চলা।

 

অলক বর্তমানে খেলছেন বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেট লীগ এনসিএলে। সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে অবস্থান করছে সিলেট ডিভিশন ক্রিকেট দল। সেখান থেকে টেলিআলাপে প্রভাতবেলার সঙ্গে আলাপচারিতায় বাংলাদেশের টেষ্ট ইতিহাসের প্রথম হ্যাট্টিকম্যান জানালেন অনেক কথা। দিয়েছেন অনেক প্রশ্নের উত্তর।

 

বাংলাদেশের টেষ্ট ইতিহাসের প্রথম হ্যাট্টিকম্যান অলক কাপালীর শহরে প্রথম টেস্ট আয়োজন হতে যাচ্ছে। অনুভুতিটা এমন? 

 

অলকঃ নিঃসন্দেহে আনন্দের সংবাদ। খুব ভাল লাগছে। সিলেটের ক্রিকেট স্টেডিয়ামটি অসাধারণ সৌন্দয্য নিয়ে দাড়িয়ে আছে। যারাই এখানে খেলে গেছে প্রশংসা করেছে। গত ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেটের প্রস্তুতি ম্যাচ ছিল এখানে। এরপর আরো আন্তর্জাতিক ম্যাচ হয়েছে। নারী বিশ্বকাপ ক্রিকেট। বিপিএল। শ্রীলংকা খেলে গেছে। আয়ারল্যান্ড খেলেছে। এখানকার অবকাঠামো ভাল। সবকিছু মিলিয়ে প্রশংসা কুড়ায়।

 

নিজের ঘরের মাটিতে টেস্ট মনের ভেতরে কোন আপেক্ষ আছে কি ?

 

অলকঃ অবশ্যই আছে। নিজে শহরে প্রথম টেস্ট খেলতে পারলে ভাল লাগতো। খারাপ  লাগবেই। আপেক্ষ থাকবে।

 

জাতীয় দলে ফেরার স্বপ্ন কি দেখা ছেড়ে দিয়েছেন ?

অলকঃ স্বপ্ন থাকবেই। যতদিন খেলবো। তবে এখন আর সেই চিন্তা বেশী করিনা। জাতীয় দলের হয়ে শেষ টেস্ট খেলেছি ২০০৬ সালে। অনেক বছর হয়ে গেছে। এখন চিন্তা করি এনসিএল, বিপিএল ও প্রিমিয়ার লীগ নিয়ে।

 

একটা সময় জাতীয় দলে সিলেটের পাঁচ ক্রিকেটার একসাথে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। হাসিবুল হোসেন শান্ত, রাজিন সালেহ, অলক কাপালী, তাপস বৈশ্য ও এনামুল হক জুনিয়র। নাজমুল হোসেন আসা যাওয়ার মাঝে ছিলেন। মাঝের অনেকটা সময় সেভাবে সিলেট হতে একসাথে জাতীয় দলে ক্রিকেটার বেড় হতে পারেনি। গত বছর দুয়েক হতে আবার আশার আলো জ্বালিয়েছেন বেশ কয়েকজন তরুণ। তাদের সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন কি?

 

অলকঃ সিলেটের জন্য এটা একটা ভাল সংবাদ। মাঝে আমাদের খারাপ সময় কেটেছে। একটা বিরাট গ্যাপ ছিল। জাতীয় দলে সেভাবে উঠে আসছিল না কেউ। আবুল হাসান নিয়মিত খেলতে পারেনি ইনজুরির কারনে। কিন্তু রাহি, খালেদরা ভাল করছিল গত কয়েক বছর যাবত। আমরা রাহিকে নিয়ে বেশ আশাবাদী ছিলাম। ধারাবাহিক ভাবে ঘরোয়া লীগে পারফর্ম করে যাচ্ছিল। রাহির সুযোগ পাওয়া আমাদের আনন্দিত করেছে। সে নিজেকে তৈরী করে জাতীয় দলে এসেছে। খালেদের কথা বলতে গেলে আমি বলবো, সে জাতীয় দলে খেলার জন্য মুখিয়ে ছিল। এনসিএল-এ ভাল বোলিং করেছে। ঢাকা মেট্টোর বিপক্ষে ১০ উইকেট নিয়েছে। ভাল্ল লাইন লেন্থে বল করছে। টেষ্টে ডাক পাবার পর ওর ভেতরে যে জেদ দেখলাম। সেটা একজন ক্রিকেটারের জন্য জরুরী। ভাল লক্ষণ।

 

আবু জাহেদ রাহি, এবাদত হোসেইন, খালেদ। এরা কি রাজিন, অলক, এনামুলও তাপসদের সময়টা ফিরিয়ে আনতে পারবে বলে মনে করেন ?

 

অলকঃ আমি আশাবাদী এদেরকে নিয়ে। এরা দীর্ঘ সময় জাতীয় দলে খেলার যোগ্যতা রাখে। আরো আছে জাকি। জাতীয় দলের দরজায় কড়া নাড়ছে সে। আমাদের সিলেটের আবার ভাল সময় আসছে। পাইপ লাইনে আরো তরুণ সম্ভবনাময় ক্রিকেটার রয়েছে। যারা জাতীয় দলে খেলবে সামনে।

 

সিলেটবাসীর একটা আপেক্ষ থেকে গেল ইমতিয়াজ তান্নাকে নিয়ে। ঘরোয়া ক্রিকেট লীগে ধারাবাহিক পারফর্ম করে, লিস্ট এ টপ স্কোরার হয়েও জাতীয় দলে সুযোগ কেন পাচ্ছেন না ? তান্না সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন কি?

 

অলকঃ আসলে সত্যি কথা বলতে গেলে বলতে হয়। তান্নার জন্য এটা কঠিন। কারন ওর পজিশনে যারা খেলেন তারা ভাল করছেন। তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মোমিমুল হক, এনামূল বিজয়। এটা তান্নাও বুঝে। রিয়ালাইজ করে। তাদের টপকে যাওয়া কঠিন। তান্না যখন ‘এ’ দলে সুযোগ পায়। সামনে কোন ম্যাচ থাকেনা। তেমন খেলা থাকে না। ভাগ্য তাকে সাপোর্ট করে না। তান্নার যোগ্যতা অবশ্যই আছে। তবে জাতীয় দলে খেলতে হলে বর্তমানে অনেক কম্পিটিশনের মধ্য দিয়ে যেতে হয়। এক্সটা ওডিনারী কিছু না থাকলে সহজ নয়।

 

জাতীয় দলের টেস্ট প্রসঙ্গে ফেরা যাক। বাংলাদেশ ওডিআই সিরিজে জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করেছে। আপনার দেখা সেই বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে আর এখনকার উভয় দলের পার্থক্য কোথায় দেখছেন ?

 

অলকঃ বাংলাদেশ এখন অনেক উপরে। ধারাবাহিক। টেস্ট র‍্যাংকিয়ে নিচে থাকলেও আমি মনে করি বাংলাদেশ আছে টপ ফোর ফাইভে। জাতীয় দল আগের চেয়ে বেশী ব্যালেন্সড। সাকিব,রুবেল, মুস্তাফিজ ছাড়াও দল ভাল করছে। ব্যাক্তিগত অর্জন আসছে। টিমের রেজাল্ট আসছে। জিম্বাবুয়ের চেয়ে এখনকার বাংলাদেশ অনেক উপরের সারির দল।

 

বাংলাদেশ সিলেটে কেমন করবে বলে মনে করছেন ?

 

অলকঃ আমি চাই আমাদের মাঠে বাংলাদেশ টেস্ট জিতে প্রথম টেস্টটা স্মরণীয় করে রাখুক। এটা ইতিহাসের পাতায় লিখা থাকবে। বাংলাদেশের সেই যোগ্যতা আছে। আমি আশাবাদী । এখন উৎযাপনের অপেক্ষায় থাকলাম।

 

0Shares

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক : কবীর আহমদ সোহেল

সম্পাদক কর্তৃক প্রগতি প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিঃ ১৪৯ আরামবাগ,ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত। বার্তা ও বাণিজ্যিক কাযালয়: ২০৭/১ ফকিরাপুল, আরামবাগ , মতিঝিল, ঢাকা-১০০০।

Designed by ওয়েব হোম বিডি

সিলেট অফিস: ২৩০ সুরমা টাওয়ার (৩য় তলা)
ভিআইপি রোড, তালতলা, সিলেট।
মোবাইল-০১৭১২-০৩৩৭১৫,০১৭১২-৫৯৩৬৫৩

E-mail: provatbela@gmail.com,

কপিরাইট : দৈনিক প্রভাতবেলা.কম

শিরোনাম :
ফাবিয়ানের ‘ছাদ থেকে পড়ে যাওয়া’কে এড়িয়ে যাচ্ছে স্কুল কর্তৃপক্ষ স্কলার্স হোমের শিক্ষার্থী ফাবিয়ান লাইফ সাপোর্টে ছাতকে যুবতীর রহস্যজনক মৃত্যু মোস্তাফিজই ম্যাচ ঘুরিয়েছে, বললেন মাশরাফি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের দাপুটে জয় আাদালতে মুরসীর ইন্তেকাল বনকলাপাড়ায় পিটুনিতে‘ডাকাত’ নিহত ‘এনজিওগ্রাম’ নয় যাচ্ছে ‘হার্ট লান’ মেশিন ওসমানীর এনজিওগ্রাম মেশিন যাচ্ছে সোহরাওয়ার্দীতে শুদ্ধাচার পুরস্কার পাচ্ছেন জৈন্তার ইউএনও মৌরিন বড়লেখায় স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন বড়লেখায় পানিতে ডুবে দু’বোনের মৃত্যু ঈদ উদযাপনে প্রস্তুত সিলেটঃ কখন কোথায় জামাত চাঁদ দেখা গেছে বুধবার ঈদুল ফিতর যে সূরা পাঠ করলে আল্লাহ তায়ালা রিজিকের দরজা খুলে দেন জামায়াত একটি দেশ প্রেমিক দল,তাদের কোন দোষ নেই : কর্নেল অলি আমেরিকায় সন্ত্রাসী হামলায় বড়লেখার জয়নুল নিহত নৈস্বর্গিক সৌন্দর্য’র বাংলাদেশ টাইগারদের ত্রিদেশীয় সিরিজ জয় রাজধানীর বায়ুদূষণ রোধে ব্যর্থতায় হাইকোর্টের ক্ষোভ অপূর্ণই থেকে গেল প্রিয়াঙ্কার ইচ্ছা সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা:কবে কোন জেলায় হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর লাশ, মিলছে না অনেক প্রশ্নের উত্তর! সন্তানের জন্য দুধ চুরি : দায় কার? রোযা:সুদৃঢ় ভিত্তির উপর সুচরিত্র গঠনের উপকরণ ছাত্রলীগের হাতে লাঞ্চিত নারী চিকিৎসক রোযার উদ্যেশ্য ও উপকারিতা বেসামাল নাইমুলঃ ক্ষমা প্রার্থনা রোজার উদ্দেশ্য রোযার সমৃদ্ধ ইতিহাস জুটির বিশ্ব রেকর্ড গড়ল ওয়েস্ট ইন্ডিজ গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া সোমবার এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ আহলান সাহলান মাহে রামাদ্বান মওদুদ আহমদ হাসপাতালে ভর্তি সালাহউদ্দিনের দেশে ফেরা আটকে গেল ‘ফণী’ কখন কোথায় কিভাবে আঘাত হানতে পারে মনির উদ্দিন স্যার আর নেই পটুয়াখালীতে ‘ফণী’ আতঙ্ক: প্রস্তুত প্রশাসন কুষ্টিয়াজুড়ে ‘ফণী’ আতঙ্ক তীর, রূপচাঁদা, পুষ্টির তেল নিম্নমানের: ৫২ ব্র্যান্ডের পণ্যে ভেজাল হালদার খালে হাজার লিটার ফার্নেস ওয়েল, বিপর্যয়ের মুখে জীববৈচিত্র্য শমী’র বিরুদ্ধে ১’শ কোটি টাকার মানহানি মামলা বয়ফ্রেন্ড বিয়ে নাকচ করায় প্রেমিকার আত্মহত্যা! এবার মুখ খুললেন মিলার সাবেক স্বামী জব্দ হতে পারে ড. কামালের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট! জামায়াতে কোন প্রভাব পড়বে না- ডা. শফিক মঞ্জুর নেতৃত্বে জামায়াতের সংস্কারপন্থীদের নতুন মঞ্চ! তরুণ প্রজন্মকে রাজনীতি সচেতন হতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী ছাত্রদল: ৬০ ভাগ অছাত্র, ৮০ ভাগ অনিয়মিত