গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া

প্রকাশিত: 1:55 AM, May 6, 2019

গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া

প্রভাতবেলা প্রতিবেদক;    গুঞ্জনটা আগেই ছিলো, রোববার বিকেলে গণফোরামের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হলো মাত্র। এই ঘোষণাতেই বলা হয় গণফোরামের নতুন কমিটির সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে রেজা কিবরিয়াকে। আর সভাপতি ড. কামাল হোসেনই নতুন মেয়াদে বহাল হলেন। রোববার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে গণফোরাম এই ঘোষণা দিয়েছে।

দলের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের সিদ্ধান্তেই রেজা কিবরিয়াকে গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করা হয়েছে।

গত ২৬ এপ্রিল দলের যে বিশেষ কাউন্সিল ডাকা হয়েছিল তাতে এ বিষয়টি ফয়সালা হওয়ার কথা থাকলেও গতকাল দফায় দফায় বৈঠকের পর নতুন কমিটির ব্যাপারে দলের হাই কমান্ড সিদ্ধান্ত নেন।

বিশিষ্ট আইনজীবী ড. কামাল হোসেন ১৯৯২ সালে আওয়ামী লীগ থেকে বেরিয়ে এসে ১৯৯৩ সালে গঠন করেন গণফোরাম।

১৯৯২ সালের ১৯ এবং ২০ সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। কাউন্সিলে জিল্লুর রহমান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। এ সময়ে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্যের পদ থেকে বাদ পড়েন ড. কামাল হোসেন।

১৯৯৩ সালের আগস্ট মাসের শেষ দিকে গণতান্ত্রিক ফোরামের তিন দিনব্যাপী জাতীয় মহাসম্মেলন আহবান করা হয়। এ সম্মেলনের মাধ্যমে ১৯৯৩ সালের ২৯ আগস্ট রাজনৈতিক দল গণফোরাম গঠনের ঘোষণা দেয়া হয়। এ সময় তৎকালীন কমিউনিস্ট পার্টির সংস্কারবাদী অংশ, পঙ্কজ ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে ন্যাপ এবং শাজাহান সিরাজের নেতৃত্বে জাসদের অংশ গণফোরামের সাথে কাজ করার সিদ্ধান্ত নেয়।

ওই সময়ে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গণফোরামে যোগ দেন সিপিবি নেতা সাইফুদ্দিন আহমেদ মানিক, ন্যাপ নেতা পঙ্কজ ভট্টাচার্য, ব্যারিস্টার আমীরুল ইসলাম, আবুল মাল আবদুল মুহিত (সাবেক অর্থমন্ত্রী), শাজাহান সিরাজ (পরে বিএনপি সরকারের মন্ত্রী)। দলের প্রথম আহবায়ক কমিটির সদস্যসচিব ছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এর পরে হন সাইফুদ্দিন আহমেদ মানিক। তার মৃত্যুর পর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দু’জন দায়িত্ব পালন করেন। তারা হলেন ইঞ্জিনিয়ার কাসেম ও অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী। ২০১১-এর ২৯ আগস্ট মোস্তফা মহসিন মন্টু সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

সর্বশেষ সংবাদ