,

হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর লাশ, মিলছে না অনেক প্রশ্নের উত্তর!

মৃদুল ব্যানার্জি : রাজধানীর ফার্মগেটে আবাসিক হোটেল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী মরিয়ম চৌধুরীর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় অনেক প্রশ্নের উত্তর মিলছে না। ঘটনার এক মাস পেরিয়ে গেলেও পুলিশ কোনো ক্লু উদ্ঘাটন করতে পারেনি। ওই ঘটনায় কাউকে গ্রেফতারও করা হয়নি। অথচ পরিবারের দাবি ওই ছাত্রীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। যদিও পুলিশ ওই ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা করেছে। পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট সেবনে ওই ছাত্রীর মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। তবে চিকিৎসকদের মতে যৌন উত্তেজক সেবনে সাধারণত কারো মৃত্যু হয় না। পুলিশও এখন তার সেই বক্তব্য থেকে সরে এসেছে। পোস্টমর্টেম রিপোর্টের আগে মৃত্যুর কারণ কী তা বলা যাবে না বলে উল্লেখ করেছে পুলিশ।

ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির ওই ছাত্রী মরিয়ম চৌধুরীর পরিবারের সদস্যদের দাবি, ঘটনার পর থেকেই পুলিশ ও হোটেল কর্তৃপক্ষ তাদের সঙ্গে রহস্যজনক আচরণ করছে। হোটেলের ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরার ফুটেজ মরিয়ম ও তার সঙ্গে লাশ উদ্ধার হওয়া সজলের পরিবারকে দেখানো হয়নি। হোটেলের এক কর্মকর্তা বলেছেন, সব ফুটেজ পুলিশ নিয়ে গেছে। অন্যজন আরেক কর্মকর্তা বলেছেন, সব সিসি ক্যামেরা নষ্ট ছিল। পরিবারের সদস্যরা বলছেন, এ ঘটনায় তারা হত্যা মামলা করতে চাইলেও পুলিশ অপমৃত্যুর মামলা নিয়েছে। এমনকি ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দিতে চেয়েছিল পুলিশ। এ নিয়ে পরিবারের সদস্যরা অনেক প্রশ্নেরই উত্তর পাচ্ছেন না।

এদিকে পুলিশের দাবি, ঘটনাস্থল থেকে ডুমেক্স নামের একটি যৌন উত্তেজক ট্যাবলেটের পাতা পাওয়া গেছে। ওই পাতায় দুটি ট্যাবলেট ছিল না। পুলিশ বলছে, ওই ট্যাবলেট সেবনের কারণেই মরিয়ম ও সজলের মৃত্যু হয়েছে। তাদের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে পরিবারের দাবি, মরিয়ম তৃতীয় কারও লালসার শিকার হয়েছেন। এ ঘটনার সাক্ষী না রাখতেই হয়তো সজলকেও হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ ও হোটেল কর্তৃপক্ষ সেই ঘটনা ধামাচাপা দিতে যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট সেবনের নাটক সাজিয়েছে।

এদিকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা বলেছেন, দুটি ডুমেক্স ট্যাবলেট সেবন করলে কারও মৃত্যু হয় না। পুরুষের যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট সেবনের কারণে নারীর মৃত্যু হওয়ার ঘটনাও নজিরবিহীন। এটা নিশ্চিতভাবেই বলা যায়, তাদের মৃত্যুর পেছনে অন্য কোনো কারণ রয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের এক (বিএসএমএমইউ) যৌন ও চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ বলেন, দুটি ডুমেক্স সেবন করলে সাধারণত কারও মৃত্যু হওয়ার কথা নয়। যদি অন্য কোনো রোগ না থাকে। দুটি কেন, তিনটি সেবন করলেও কারও মৃত্যু হওয়ার কথা নয়। আর এটি সেবন করলে নারীর মৃত্যু হবে না। অন্য কোনো কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ এটা বললে তা অতি উৎসাহী হয়ে বলেছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এদিকে গত ২ এপ্রিল ফার্মগেটের আবাসিক হোটেল ‘সম্রাট’-এর ৮০৮ নম্বর কক্ষ থেকে দুই শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধারের পর পুলিশ যে বক্তব্য দিয়েছিল এখন সেখান থেকে সরে এসেছে। ওই সময় তেজগাঁও থানার এএসআই আলমগীর হোসেন গণমাধ্যমে বলেছিলেন, সজলকে খাটে শোয়া অবস্থায় পাওয়া গেছে। আর মরিয়ম মেঝেতে পড়েছিল। হয়তো যৌন উত্তেজক কোনো ট্যাবলেট খেয়ে তারা মারা গেছেন।

তবে এবিষয়ে তেজগাঁও থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম  জানান, এটি একটি রহস্যজনক মৃত্যু। আমরা শিগগিরই ভিসেরা ও পোস্টমর্টেম প্রতিবেদন পাব। ওই রিপোর্ট পাওয়ার আগে বলা যাবে না তাদের মৃত্যু কিভাবে হয়েছে।

জানা গেছে, মরিয়ম চৌধুরীর বাড়ি মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানের কোলা গ্রামে। তার বাবা মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী বলেন, অনেক স্বপ্ন নিয়ে ঢাকায় মেয়েকে লেখাপড়ার জন্য পাঠিয়েছিলাম। কিন্তু আমার মেয়েটাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ লাশের ময়নাতদন্তও করতে চায়নি। থানায় তিন ঘণ্টা বসিয়ে রেখেছিল। আমার মেয়ে হয়তো তৃতীয় কারও লালসার শিকার হয়েছে। কোনো সাক্ষী যেন না থাকে সেজন্য সজলকেও হত্যা করা হয়েছে। তিনি বলেন, গ্রামে থাকতে মরিয়মের সঙ্গে একটি ছেলের সম্পর্ক ছিল। পরে ওই ছেলে মরিয়মকে হত্যার হুমকিও দিয়েছিল। জমিজমা সংক্রান্ত সমস্যা রয়েছে আমাদের। এসব বিষয় পুলিশ তদন্ত করে দেখতে পারে। জিগাতলার মুন্সীবাড়ী রোডের একটি নারী হোস্টেলে মরিয়ম ভাড়া থাকতেন।

ওই নারী হোস্টেলের পরিচালক আমেনা বেগম জানান, ১ এপ্রিল রাতে মরিয়ম তার খালার বাসায় যাওয়ার কথা বলে হোস্টেল থেকে বের হন। তখন সে জানিয়েছিল, রাতে বাসায় ফিরবে না। পরে তার লাশ উদ্ধারের খবর পেয়েছি আমরা।

এদিকে হোটেল সম্রাটের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ নিয়ে লুকোচুরি করা হচ্ছে বলে মরিয়মের পরবিারের সদস্যরা অভিযোগ করেছেন। সিসি ক্যামেরার ফুটেজের বিষয়ে জানতে চাইলে হোটেলের ব্যবস্থাপক রাসেল আহমেদ সুমন বলেন, সব ফুটেজ পুলিশ নিয়ে গেছে। অপরদিকে হোটেলের তত্ত্বাবধায়ক আহাম্মদ হোসেন বলেন, সিসি ক্যামেরাগুলো নষ্ট ছিল। তবে পুলিশের দাবি, ৯ তলা ভবনের টাইলসের দোকানে শুধু সিসি ক্যামেরা সচল ছিল। ওই ক্যামেরায় সজল ও মরিয়মের প্রবেশের দৃশ্য দেখা গেছে।

এছাড়া হোটেল সম্রাটের ৮০৮ নম্বর কক্ষের ফাঁকা জায়গা নিয়ে রহস্য তৈরি হয়েছে। সম্রাট হোটেলের ৮০৮ নম্বর কক্ষ থেকে সজল ও মরিয়মের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ওই কক্ষের টয়লেটের ওপরের ফাঁকা জায়গা দিয়ে খুব সহজে ৮০৮ নম্বর কক্ষে প্রবেশ করা যায়। ওই ফাঁকা জায়গা দিয়ে খুনিরা বেরিয়ে গেছে কিনা এ নিয়ে স্বজনরা প্রশ্ন তুলেছেন।

এর বাইরে মরিয়ম ও সজলের স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে হোটেলে ওঠা নিয়েও প্রশ্ন থেকে গেছে। মরিয়মের বাবা মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী বলেন, সজল ও মরিয়ম স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে হোটেলে উঠল কিভাবে? তাদের কাছে তো বিবাহের কোনো কাগজপত্র ছিল না। এ বিষয়ে হোটেলের তত্ত্বাবধায়ক আহাম্মদ হোসেন বলেন, তারা সব ডকুমেন্ট দেখিয়ে হোটেল ভাড়া নিয়েছিল। এগুলো পুলিশকে দেয়া হয়েছে। তবে এসব বিষয়ে পরিবারের সদস্যরা এখনও অন্ধকারে রয়েছেন। মরিয়মের বাবা মোস্তাক চৌধুরী  বলেন, আমরা পোস্ট মর্টেম রিপোর্টের অপেক্ষা করছি। রিপোর্ট পেলেই আদালতে হত্যা মামলা করবো। তবে রিপোর্ট কবে পাব জানিনা।

মোস্তাক চৌধুরী আরও বলেন, হোটেল সম্রাট কর্তৃপক্ষকে ধরলে হত্যার রহস্য বেরিয়ে আসবে। হোটেল কর্তৃৃপক্ষের ভাষ্য অনুযায়ী আমার মেয়ে হোটেলে উঠেছে ১ এপ্রলি রাত আটটায়। পরদিন ২ এপ্রিল বিকেল চারটায় হোটেল কর্তৃপক্ষ টের পায় তার মৃত্যু হয়েছে। তারা পুলিশকে খবর দিয়েছে বিকেল সাড়ে ৪ টায়। এর আগে হোটেল কর্তৃপক্ষ কেন জানলো না ওই কক্ষে কি হচ্ছে। তারা কি সকালে রুম সার্ভিসের জন্য কাউকে পাঠায়নি। না পাঠিয়ে থাকলে কেন পাঠায়নি। দুপুরেও কি কেউ কোন খোঁজ নেয়নি। না নিলে কেন নেয়নি। বিকেলে কেন তারা বিষয়টি টের পাবে।

মোস্তাক চৌধুরী অভিযোগ করেন হোটেল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি সকালেই টের পেয়েছিল। কিন্তু তারা বিষয়টি নিয়ে সময় ক্ষেপন করে পুলিশের সঙ্গে দেনদরবার করেছে। পুলিশকে ম্যানেজ করে বিকেলে লাশ উদ্ধারের নাটক সাজিয়েছে। হোটেল কর্তৃপক্ষকে আইনের আওতায় নিলে মারিয়াম ও সজলের মৃত্যুর আসল রহস্য বের হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

মোস্তাক চৌধুরী আরও বলেন ওই হোটেলের ৮০৮ নম্বর কক্ষে আমার মেয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ওই কক্ষের যে বাথরুম রয়েছে তার উপরে বিশাল খোলা জায়গা আছে যেটা দিয়ে সহজেই বাইরে যাওয়া যায়। নিশ্চই হত্যাকারীরা ওই অংশ দিয়ে বেরিয়ে গেছে এমনটাও হতে পারে বলে দাবি করেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর বাবা।

0Shares

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক : কবীর আহমদ সোহেল

সম্পাদক কর্তৃক প্রগতি প্রিন্টিং এন্ড প্যাকেজিং লিঃ ১৪৯ আরামবাগ,ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত। বার্তা ও বাণিজ্যিক কাযালয়: ২০৭/১ ফকিরাপুল, আরামবাগ , মতিঝিল, ঢাকা-১০০০।

Designed by ওয়েব হোম বিডি

সিলেট অফিস: ২৩০ সুরমা টাওয়ার (৩য় তলা)
ভিআইপি রোড, তালতলা, সিলেট।
মোবাইল-০১৭১২-০৩৩৭১৫,০১৭১২-৫৯৩৬৫৩

E-mail: provatbela@gmail.com,

কপিরাইট : দৈনিক প্রভাতবেলা.কম

শিরোনাম :
টাইগারদের ত্রিদেশীয় সিরিজ জয় রাজধানীর বায়ুদূষণ রোধে ব্যর্থতায় হাইকোর্টের ক্ষোভ অপূর্ণই থেকে গেল প্রিয়াঙ্কার ইচ্ছা সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা:কবে কোন জেলায় হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর লাশ, মিলছে না অনেক প্রশ্নের উত্তর! সন্তানের জন্য দুধ চুরি : দায় কার? রোযা:সুদৃঢ় ভিত্তির উপর সুচরিত্র গঠনের উপকরণ ছাত্রলীগের হাতে লাঞ্চিত নারী চিকিৎসক রোযার উদ্যেশ্য ও উপকারিতা বেসামাল নাইমুলঃ ক্ষমা প্রার্থনা রোজার উদ্দেশ্য রোযার সমৃদ্ধ ইতিহাস জুটির বিশ্ব রেকর্ড গড়ল ওয়েস্ট ইন্ডিজ গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া সোমবার এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশ আহলান সাহলান মাহে রামাদ্বান মওদুদ আহমদ হাসপাতালে ভর্তি সালাহউদ্দিনের দেশে ফেরা আটকে গেল ‘ফণী’ কখন কোথায় কিভাবে আঘাত হানতে পারে মনির উদ্দিন স্যার আর নেই পটুয়াখালীতে ‘ফণী’ আতঙ্ক: প্রস্তুত প্রশাসন কুষ্টিয়াজুড়ে ‘ফণী’ আতঙ্ক তীর, রূপচাঁদা, পুষ্টির তেল নিম্নমানের: ৫২ ব্র্যান্ডের পণ্যে ভেজাল হালদার খালে হাজার লিটার ফার্নেস ওয়েল, বিপর্যয়ের মুখে জীববৈচিত্র্য শমী’র বিরুদ্ধে ১’শ কোটি টাকার মানহানি মামলা বয়ফ্রেন্ড বিয়ে নাকচ করায় প্রেমিকার আত্মহত্যা! এবার মুখ খুললেন মিলার সাবেক স্বামী জব্দ হতে পারে ড. কামালের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট! জামায়াতে কোন প্রভাব পড়বে না- ডা. শফিক মঞ্জুর নেতৃত্বে জামায়াতের সংস্কারপন্থীদের নতুন মঞ্চ! তরুণ প্রজন্মকে রাজনীতি সচেতন হতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী ছাত্রদল: ৬০ ভাগ অছাত্র, ৮০ ভাগ অনিয়মিত চলে গেলেন সাংবাদিক মাহফুজউল্লাহ ‘মনসুর ও মোকাব্বির কামালের সাহস পেয়েই সংসদে গিয়েছে’ ‘নতুন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’র ঘোষণা দেবেন মন্জু শফিকুল হক আমকুনী:সিলেটের এক নক্ষত্র ‘উনি বলবেন সাদা, আমি বলছি অফ হোয়াইট- এখানে ঝগড়া করার কিছু নাইতো, বাই’ জয়ে শুরু লাল সবুজের মুমিনুলের বিয়েতে তারার মেলা রায়’র আগেই ফায়সালা সাংবাদিক মাকসুদা লিসার পিতার ইন্তেকাল “যেখানে সিঙ্গারা খেলে চলবে সেখানে অতিরিক্ত কিছু খাওয়ার দরকার নেই” ভারতের ভিসা বাতিল, দেশে ফিরলেন ফেরদৌস নুসরাত হত্যায় সরাসরি জড়িত নারী গ্রেপ্তার ওসিকে রক্ষায় ফেনীর এসপি’র কৌশল নুসরাত হত্যা: দুই আসামির জবানবন্দি, সব জানতেন আ’লীগ নেতা লন্ডনে ডি এম হাই স্কুলের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত ছাতকের মঈনপুরে শতদল সাহিত্য পরিষদের নববর্ষ উদযাপন দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে নুসরাত হত্যা মামলা বুকে বুক মেলালেন আরিফ-কামরান