" /> আজহারিকে নিয়ে কানাইঘাটে দু’পক্ষ মুখোমুখি – দৈনিক প্রভাতবেলা

আজহারিকে নিয়ে কানাইঘাটে দু’পক্ষ মুখোমুখি

প্রকাশিত: ৭:২০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০২০

আজহারিকে নিয়ে কানাইঘাটে দু’পক্ষ মুখোমুখি

মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারি।  একই সঙ্গে ‘নন্দিত’ ও ‘নিন্দিত’।  আগামী ২০ জানুয়ারি সিলেট কানাইঘাটের মুকিগঞ্জ বাজার জামেয়া মাঠে অনুষ্ঠিতব্য তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে আসার কথা রয়েছে তার। তবে আজাহারির আগমন নিয়ে ইতোমধ্যে কানাইঘাটে দেখা দিয়েছে উত্তেজনা। মাহফিলের পক্ষে-বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন উপজেলার আলিয়া ও কওমিপন্থী আলেম-ওলামা এবং দু’পক্ষের সমর্থকরা। এ উত্তেজনা সংঘর্ষপর্যায়ে গড়াতে পারে বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।

 

জানা গেছে, আগামী ২০ জানুয়ারি কানাইঘাটের মুকিগঞ্জ বাজার জামেয়া মাঠে মুকিগঞ্জ ইসলামী সমাজ কল্যাণ পরিষদ’র উদ্যোগে একটি তাফসিরুল কোরআন মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি করা হয়েছে ‘বিতর্কিত’ আলেম মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারিকে।

 

এদিকে আজহারিকে ওইদিন কানাইঘাটে আসতে দেয়া হবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন কানাইঘাট দারুল উলুম কওমি মাদরাসার অনুসারী আলেম-ওলামা, ছাত্র ও কিছু স্থানীয় লোকজনের একাংশ। এ ইস্যুতে তাদের উদ্যোগে মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুরে কানাইঘাট দারুল উলুম কওমি মাদরাসার সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় তারা মিজান আজহারিকে ‘ইসলামবিরোধী ফতোয়াবাজ’ আখ্যা দিয়ে কানাইঘাটে তাকে প্রতিরোধ করতে সর্বাত্মক চেষ্টা চালাবেন বলে বক্তব্য প্রদান করেন।

 

সভায় সভাপতিত্ব করেন কানাইঘাট দারুল উলুম মাদরাসার মুহতামিম আল্লামা মুহাম্মদ বিন ইদ্রিস লক্ষ্মীপুরী। বক্তব্য রাখেন শায়খুল হাদিস আল্লামা আলিমুদ্দীন শায়খে দুর্লভপুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লুৎফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, সহ-সভাপতি জামাল উদ্দীন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল্লাহ শাকির, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি কে এইচ আব্দুল্লাহ, আল্লামা শামসুদ্দীন দুর্লভপুরীসহ সিলেটের কয়েকজন শীর্ষ আলেম।

 

সভার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়- ‘ইসলামবিরোধী বক্তব্য প্রদানকারী’ ড. মিজানুর রহমান আজহারিকে আল্লামা মুশাহিদ বায়মপুরী (রহ.) পূণ্যস্মৃতি বিজড়িত কানাইঘাট উপজেলায় আসতে দেয়া হবে না। কানাইঘাটের সর্বস্তরের তৌহিদি জনতাকে সঙ্গে নিয়ে আজহারিকে প্রতিরোধ করতে প্রয়োজনে লংমার্চের ডাক দেয়া হবে।

 

এছাড়াও মিজানুর রহমান আজহারীকে প্রতিরোধের লক্ষ্যে ১৬ জানুয়ারি দুপুর ২টায় কানাইঘাট পূর্ব বাজারে ইমান আকিদা সংরক্ষণ কমিটি ও তৌহিদি জনতার উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশ ও গণমিছিলের ডাক দিয়ে মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে কানাইঘাটের বিভিন্ন স্থানে মাইকিং করা হয়েছে। পরে এক সভা থেকে কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ একটি প্রতিনিধি দল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বারিউল করিম খান ও থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুদ্দোহার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে মিজানুর রহমান আজহারি যাতে কানাইঘাটে না আসতে পারেন সে ব্যাপারে প্রশাসনিকভাবে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

 

অন্যদিকে, মুন্সীগঞ্জ ইসলামী সমাজ কল্যাণ পরিষদের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেন, ২০ জানুয়ারি তাদের পূর্বনির্ধারিত তাফসির মাহফিল মুকিগঞ্জ বাজার সংলগ্ন জামেয়া মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে তাফসির পেশ করবেন মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারী। আমরা সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি এবং বিষয়টি প্রশাসনিকভাবে জানানো হয়েছে।

 

এ প্রসঙ্গে কানাইঘাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুদ্দোহা জানান, বিষয়টি নিয়ে তিনি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলেছেন। বিষয়টি পুলিশ পর্যবেক্ষণ করছে বলেও তিনি জানান।

 

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ বারিউল করিম বলেন, ইসলামিক বক্তা ড. মিজানুর রহমান আজহারীর ব্যাপারে কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগ ও দারুল উলুম কওমি মাদরাসার নেতৃবৃন্দ আমার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। এনিয়ে ঊধ্বর্তন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করা হবে।

 

প্রভাতবেলা /১৫-জানুয়ারি-২০/ তৌহিদ’জিহান

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ