সাঈদীর মামলার সাক্ষী বাবুলের মৃত্যুঃ বয়স নিয়ে ধূম্রজাল

প্রকাশিত: ১:৪৪ পূর্বাহ্ণ, মে ১৬, ২০২০

সাঈদীর মামলার সাক্ষী বাবুলের মৃত্যুঃ বয়স নিয়ে ধূম্রজাল

প্রভাতবেলা ডেস্ক:  জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর যুদ্ধাপরাধ মামলার রাষ্ট্রপক্ষের অন্যতম সাক্ষী আবদুল হালিম বাবুল মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার রাত ১ টার দিকে। তার দাফনও সম্পন্ন হয়েছে। এ খবর এখন পুরোনো। কিন্তু আব্দুল হালিম বাবুলের প্রকৃত বয়স কত তার কোন কূল কিনারা মিলছেনা।

ডেইলি স্টারসহ প্রায় সবকটি দৈনিক ও অনলাইন পোর্টাল দিনে নিউজ দিয়েছে মাওলানা সাঈদীর মামলার অন্যতম স্বাক্ষী আব্দুল হালিম খলিফা (৫৫) মারা গেছেন। সবাই বয়স লিখলো ৫৫।
সোস্যাল মিডিয়ায় প্রশ্ন উঠলো বয়স ৫৫ হলে এই লোক ৭১ এ ছিল ছয় বছরের শিশু ! তাহলে কি ছয় বছরের শিশুর সাক্ষ্যকে গ্রহন করে একজন মানুষের জীবন-মরন-সাজা নির্ধারণ করা হয়ে গেল ?

সন্ধ্যার ডেইলি স্টার সহ বেশ কিছু দৈনিক  ও পোর্টাল মরে যাওয়া সাক্ষীর বয়স ৬ ঘন্টার ব্যবধানে ৮ বছর বাড়িয়ে নিউজ এডিট করলো। এবার বয়স লেখা হল ৬৩।

সাধারণ মানুষের প্রশ্ন এই আব্দুল হালিম বাবুল ওরফে খলিফার আসল বয়স কত?

রাত দেড়টা অবধি কিছু দৈনিকে বাবুলের বয়স ৫৫ বহাল রয়েছে। দৈনিক আমাদের সময় লিখেছে:

‘জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর যুদ্ধাপরাধ মামলার রাষ্ট্রপক্ষের অন্যতম সাক্ষী আবদুল হালিম বাবুল (৫৫) স্ট্রোক করে মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার নলবুনিয়া গ্রামে নিজ বাড়িতে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।’

বাবুলের চিকিৎসায় ভোগান্তি প্রসংগে,বাবুলের ভাই সালাম বাহাদুর জানান, কয়েকদিন আগে বাবুল হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। চিকিৎসকরা জানান তার মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের সাক্ষী হওয়ায় তাকে হাসপাতালের সাধারণ ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা করানো সম্ভব হয়নি। তাকে কয়েদিদের কক্ষে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। রাষ্ট্রপক্ষের সাক্ষী হওয়ায় নিরাপত্তার জন্য তার সঙ্গে নিয়মিত পুলিশ থাকত। এমনকি পুলিশি নিরাপত্তার কারণে তাকে প্রাইভেট হাসপাতালেও ভর্তি করানো সম্ভব হয়নি। গত বুধবার তাকে বাড়ি নিয়ে আসা হয়।

সালাম বাহাদুরের অভিযোগ, তার ভাইয়ের সুচিকিৎসার জন্য জরুরি সেবা পেতে রাষ্ট্রের বিভিন্ন মহলে তিনি যোগাযোগ করেও কোনো সুফল পাননি। সুচিকিৎসার অভাবে তার ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। তিনি আরও বলেন, আমার ভাইয়ের কোনো শত্রু ছিল না। পুলিশ প্রহরার কারণে তার সাধারণ জীবনযাপন ব্যাহত হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ