‘অপরাজিতা’র শারমিন এবার পুলিশের কাছে পরাজিত

প্রকাশিত: ২:২৫ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০২০

‘অপরাজিতা’র শারমিন এবার পুলিশের কাছে পরাজিত

প্রভাতবেলা প্রতিবেদক, ঢাকা:  এবার গ্রেফতার করা হলো শারমিন জাহানকে। তিনি মাস্ক কেলেংকারীর হোতা। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্ক সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ‘অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনাল এর স্বত্বাধিকারী। শুক্রবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) শাহবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেন।

শারমিন জাহান শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ‘এন৯৫’ মাস্কের পরিবর্তে নকল ও ত্রুটিপূর্ণ মাস্ক সরবরাহ করেন।

প্রসঙ্গত: বৃহস্পতিবার রাতে বিএসএমএমইউয়ের প্রক্টর বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় প্রতারণার মামলা করেন। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, এই মাস্কের কারণে কোভিড-১৯ সম্মুখযোদ্ধাদের জীবন মারাত্মক ঝুঁকিতে পড়েছে।

মামলার আসামি শারমিন জাহান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। এরপর কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহসম্পাদক পদে ছিলেন। আওয়ামী লীগের গত কমিটিতে মহিলা ও শিশুবিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য ছিলেন। এর আগের কমিটিতে একই উপকমিটির সহসম্পাদক ছিলেন তিনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে স্নাতকোত্তর শেষে বিশ্ববিদ্যালয়েরই প্রশাসন-১ শাখায় সহকারী রেজিস্ট্রার হিসেবে কর্মরত তিনি। তাঁর বাড়ি নেত্রকোনার পূর্বধলার শ্যামগঞ্জের গোহালকান্দায়। তিনি মাস্ক সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান অপরাজিতা ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী।

সূত্র জানায়, মাস্ক কেলেংকারির ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে শাহবাগ থানায় মামলা দায়েরের পর থেকে শারমিন জাহান তার গ্রেফতার এড়াতে প্রশাসনের শীর্ষ মহলে যোগাযোগ করতে থাকেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি টিভি চ্যানেলে তিনি সাক্ষাৎকার দেন। এরপর তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন। পরে রাতে তিনি শাহবাগ দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ আনোয়ার পাশা ভবন আবাসিক এলাকায় যাওয়ার পথে ডিবি পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 41
    Shares

সর্বশেষ সংবাদ