ইউরোপীয় ইউনিয়নের সম্মেলন স্থগিত

প্রকাশিত: ৪:৩১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০২০

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সম্মেলন স্থগিত

বিশ্বভূবন ডেস্ক:

ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমণের হার আবারও বাড়তে শুরু করেছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আসন্ন ইইউ (ইউরোপীয় ইউনিয়ন) সম্মেলন স্থগিত করা হয়েছে। ব্রাসেলসে ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল।

শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

ছয় মাস মেয়াদে বর্তমানে ইইউ প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করছে জার্মানি। দেশটির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল বলেন, মহামারির ফলে এটি স্পষ্ট যে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের অনানুষ্ঠানিক শীর্ষ সম্মেলন হচ্ছে না।

আগামী ১৬ নভেম্বর বার্লিনে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

এদিকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে শনিবার থেকে প্যারিসসহ ফ্রান্সের আটটি শহরে রাত্রিকালীন কারফিউ জারি করা হয়েছে। তার একদিন আগে বৃহস্পতিবার ফ্রান্সে নতুন করে করোনাভাইরাস আক্রান্ত শনাক্তের সংখ্যা লাফিয়ে বেড়েছে। বুধবার ফ্রান্সে নতুন কোভিড আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৩০ হাজার ৬২১ জন, যা আগের দিন ছিল ২২ হাজার ৫৯১ জন। প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বলেছেন, দৈনিক নতুন সংক্রমণের সংখ্যা তিন হাজারে নামিয়ে আনতে চান তিনি।

ফ্রান্সের মতো ইতালিতেও বৃহস্পতিবার নতুন সংক্রমণের সংখ্যা বেড়েছে। শটির দক্ষিণ কামপানিয়া অঞ্চলে এবং নেপলস শহরে সব স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে দুই সপ্তাহের জন্য।

ইউরোপে সর্বোচ্চ সংক্রমণের হার এই মুহূর্তে চেক প্রজাতন্ত্রে। সেখানে অক্টোবরে করোনা ভাইরাসের নতুন সংক্রমণের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। চেক প্রজাতন্ত্রে স্কুল ও বার বন্ধ করে দেওয়া হলেও সংক্রমণ বাড়ছে। চেক সরকার রোগীদের জন্য প্রথম ফিল্ড হাসপাতাল তৈরি করার কথা এবং বিদেশে কর্মরত চিকিৎসকদের দেশে ফেরার আহ্বান জানিয়েছে।

বৃহস্পতিবার নতুন ৬ হাজার ৬৩৮ জন করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে জার্মানিতে। যা মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে দৈনিক সংক্রমণের হিসাবে সর্বোচ্চ। জার্মানিতে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার বার এবং ক্লাব নির্ধারিত সময়ের আগেই বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার থেকে পর্তুগালে একসঙ্গে পাঁচজনের বেশি জড়ো হতে পারবে না বলে সিদ্ধান্ত জানিয়েছে দেশটির সরকার। পাশাপাশি বিয়ে এবং ব্যাপটিজমের অনুষ্ঠানে সর্বোচ্চ ৫০ জন জড়ো হতে পারবে বলে জানানো হয়েছে। নিষিদ্ধ করা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্টি। এমন পরিস্থিতিতেই আসন্ন ইইউ সম্মেলন বাতিলের ঘোষণা দেন জার্মান চ্যান্সেলর।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 4
    Shares

সর্বশেষ সংবাদ