ইরানে খোমেনী বিরোধী বিক্ষোভ অব্যাহত

প্রকাশিত: ১১:৫২ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২০

ইরানে খোমেনী বিরোধী বিক্ষোভ অব্যাহত

বিশ্বভূবন ডেস্ক:

 

ইরানের রাজধানী তেহরান ও বিভিন্ন শহরে দ্বিতীয় দিনে শত শত বিক্ষোভকারী রাস্তায় নেমে দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন ফুটেছে দেখা গেছে, বিক্ষোভকারীরা সরকারবিরোধী স্লোগান দিচ্ছে: তাদের ভাষ্য, তারা আমাদের সঙ্গে মিথ্যা বলেছে যে আমেরিকা আমাদের শত্রু কিন্তু এখানেই আমাদের শত্রু। বিক্ষোভকারীদের মধ্যে অনেকেই নারী।

 

 

এর আগে বিক্ষোভকারীরা ইউক্রেনের যাত্রীবাহী বিমানকে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে ভূপাতিত করার বিষয়টি অস্বীকার করায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মিথ্যাবাদী বলে অভিহিত করে। সেইসঙ্গে ইরানের নেতৃত্বের পদত্যাগ দাবি করছে বিক্ষোভকারীরা।

 

 

বিবিসি অনলাইন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বিক্ষভকারীরা বিভিন্ন শহরের দেশটির বিভিন্ন নেতাদের বিরুদ্ধে স্লোগান দিচ্ছে। এছাড়া নিরাপত্তা বাহিনীরা সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। অভিযোগ, নিরাপত্তা বাহিনী বিক্ষোভকারীদের ওপর টিয়ার গ্যাস ছুঁড়েছে।

 

 

আইএলএনএ নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, অন্তত ৩ হাজারের বেশি বিক্ষভকারীকে পুলিশ হটিয়ে দিয়েছে।

 

 

এর আগে কয়েকশ শিক্ষার্থী ইরানের শরীফ ও আমির কবির নামে অন্তত দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে জড়ো হয়। প্রথমে দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে জড়ো হয় শিক্ষার্থীরা। কিন্তু সন্ধ্যা নাগাদ তা বিক্ষোভে রূপ নেয়।

 

 

এছাড়া ফার্স নিউজ এজেন্সি জানায়, এক হাজারের বেশি মানুষ দেশটির নেতাদের বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়েছে এবং সোলেইমানির ছবি ছিঁড়েছে।

 

 

শিক্ষার্থীরা বিমানটি ভূপাতিত করার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের, এবং যারা এই ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেছিল, তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার আহ্বান জানিয়েছে।

 

 

জানা যায়, প্রতিবাদী স্লোগানের মধ্যে ছিল ‘কমান্ডার-ইন-চিফ পদত্যাগ করুন’। এখানে তারা শীর্ষ নেতা আলি খামেনিকে উদ্দেশ্য করে স্লোগানটি দিয়েছে। এছাড়া ‘মিথ্যাবাদীদের মৃত্যুদণ্ড দাও’ বলেও তারা স্লোগান দেয়।

 

 

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইংরেজি এবং ফারসি দুই ভাষায় টুইটে বলেছেন, ইরানের সাহসী ও ভুক্তভোগী জনগণের প্রতি: আমি আমার রাষ্ট্রপতি হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণের শুরু থেকেই আপনার পাশে আছি এবং আমার সরকার আপনাদের পাশে থাকবে। আমরা আপনাদের প্রতিবাদ নিবিড়ভাবে অনুসরণ করছি। আপনাদের সাহস অনুপ্রেরণা দেয়। বিবিসি, রয়টার্স, ইউরো নিউজ।

 

 

প্রভাতবেলা/এমএ

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ সংবাদ