তীরে এসে তরী ডুবল বাংলাদেশের

প্রকাশিত: ৫:৪৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২১

তীরে এসে তরী ডুবল বাংলাদেশের

মাঠে ময়দানে ডেস্ক:

চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে হারের স্বাদ পাওয়ার পর মিরপুরে দ্বিতীয় টেস্টে ঘুরে দাঁড়ানর লক্ষ্যে মাঠে নামে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে প্রথম ইনিংসেই হতাশ করে টাইগাররা। বাংলাদেশের বোলারদের ব্যর্থতায় ৪০৯ রানের বিশাল সংগ্রহ পায় সফরকারীরা। জবাবে ব্যাত করতে নেমে হতাশ করেন তামিম-মুমিনুলরা। ২৯৬ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস।

দ্বিতীয় ইনিংসে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় তাইজুলরা। ১১৭ রানেই গুটিয়ে দেয় উইন্ডিজকে। ২৩১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে জয়ের সম্ভাবনা জাগালেও শেষ পর্যন্ত হতাশ করে টাইগার শিবির। ২১৩ রানে থামে মুমিনুলদের লড়াই। ফলে ১৭ রানে হেরে যায় বাংলাদেশ। এর আগে সিরিজের প্রথম টেস্ট ৩ উইকেটে হেরেছিল মুমিনুল হকের দল। এ হারের ফলে দুই ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হলো টাইগাররা।

প্রথম ইনিংসে ১১৩ রানের লিডের সঙ্গে দ্বিতীয় ইনিংসে ১১৭ রান যোগ করে উইন্ডিজ। বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৩১। এই রান তাড়া করতে নেমে স্বাগতিকদের শুরুটা ছিল স্বপ্নের মতো। তামিমের বিধ্বংসী শুরুতে কোনো উইকেট না হারিয়েই দলীয় অর্ধশতক পূরণ করে টাইগাররা। ফিফটি পূরন করেন তামিম নিজেও।

দ্বিতীয় সারির দল হলেও উইন্ডিজ ক্রিকেটাররা যে হাল ছাড়ার পাত্র না। তাই সৌম্যকে সাজঘরে ফিরিয়ে আক্রমণের শুরু। একে একে উইকেট দান করে আসেন তামিম, শান্ত, মুশফিকরা। চাপে পড়ে বাংলাদেশ, উজ্জ্বল হয় ক্যারিবীয়দের জয়ের সম্ভাবনা।

টার্গেট খুব বেশি না হওয়ায় তবুও আশা টিকে ছিল। হয়তো ব্যাটসম্যানদের মাঝে কেউ একটু দায়িত্ব নিয়ে খেললে হয়েও যেতো। কিন্তু কারো হয়তো টেস্ট জেতার মানসিকতাই ছিল না! ফলে টাইগার ব্যাটারদের একের পর এক আত্মহত্যায় উল্লাসে মাতে ক্যারিবীয়রা। ফিকে হয়ে আসে সিরিজ সমতায় শেষ করার স্বপ্ন।

শেষদিকে মেহেদি হাসান মিরাজ চেষ্টা করেছেন বটে। তবে তা যথেষ্ট ছিল না। তার ব্যাটে একসময় ম্যাচ জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিল বাংলাদেশ। তবে তা আর হয়নি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 5
    Shares

সর্বশেষ সংবাদ