নবীগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ!

প্রকাশিত: ৫:২২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৩০, ২০২৩

নবীগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ!
হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মনোনয়পত্র দাখিল অনুষ্ঠানে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে দু’পক্ষের অন্তত ১০ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় শহরজুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে হবিগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরীর মনোনয়ন দাখিল উপলক্ষে নবীগঞ্জ শহরে নতুন বাজার এলাকায় মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। এ উপলক্ষে সকাল থেকে আওয়ামী লীগ-যুবলীগ ছাত্রলীগসহ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা জড়ো হয়।

এ সময় উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক নাজিম উদ্দিনের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সভাস্থলে আসলে অপর গ্রুপের ছাত্রলীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম রুবেলের লোকজনের সাথে তুচ্চ ঘটনা নিয়ে বাকবিতন্ডার পর ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। পরে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দুইপক্ষের মাঝে দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। উভয় পক্ষের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও একটি দোকান ভাংচুর করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

আরও পড়ুন  সিকৃবিতে "বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ" শীর্ষক আলোকচিত্র প্রদর্শনী

এ ব্যাপারে উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক নাজিম উদ্দিন বলেন, তারা শান্তিপূর্ন অবস্থানকালে জাহেদুল ইসলাম রুবেলের নেতৃত্বে কয়েকজন  কর্মী আজগর ও ইমনের উপর হামলা চালায়। এতে তারা আহত হয়। পরে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জাহিদুল ইসলাম রুবেল।

তিনি উল্টো অভিযোগ করে বলেন, নাজিম উদ্দিনসহ তার কর্মীরা হঠাৎ করে অতর্কিতভাবে তাদের উপর হামলা চালায়। ভাংচুর করে  দোকান পাট।

নবীগঞ্জ থানার (ওসি) মোঃ মাসুক আলী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ প্রার্থী ডাঃ মুশফিক হুসেনকে স্বাগত জানাতে গিয়ে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের নেতারা বাক-বিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এ সময় তারা ধাক্কা-ধাক্কি করলে উত্তেজনা দেখা দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

সর্বশেষ সংবাদ