নাসা জয়ী বাংলাদেশী মুনমুন

প্রকাশিত: ২:৪৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৭, ২০২০

নাসা জয়ী বাংলাদেশী মুনমুন

প্রভাতবেলা ডেস্ক:

মাহমুদা সুলতানা মুনমুন। যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার উদীয়মান বিজ্ঞানী। পাবনার ঈশ্বরদীর সলিমপুর ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের প্রয়াত গোলাম জাকারিয়া মানুর মেয়ে তিনি। ন্যানোটেকনোলজিতে তার কাজের জন্য সম্প্রতি ‘নাসা’ থেকে ‘ইনোভেটর অফ দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত হয়েছেন মাহমুদা সুলতানা (মুনমুন)। ‘কোয়ান্টাম ডট স্পেক্ট্রোমিটার ডিভাইস’ নামের এক প্রযুক্তি আবিস্কার তাকে দিয়েছে ‘সেরা উদ্ভাবক-২০১৭’র সন্মান। তার এ অর্জন বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে অনন্য এ উচ্চতায় নিয়ে গেছে।

 

 

তার আবিষ্কার ‘কোয়ান্টাম ডট স্পেক্ট্রোমিটার ডিভাইস’ তাক লাগিয়ে দিয়েছে বিশ্ববাসীকে। এই কোয়ান্টাম ডট বা বিন্দু মূলত অর্ধপরিবাহী এক ধরনের ন্যানোক্রিস্টাল। যা কখনও খালি চোখে দেখা যায় না। এর আকার এবং রাসায়নিক গঠন নির্ভর করে তা আলোর বিভিন্ন তরঙ্গদৈর্ঘ্য কতোটুকু শোষণ করবে তার উপর। সাধারণত টেলিভিশন, স্মার্টফোনের ক্যামেরা, মেডিকেল ডিভাইসে ব্যবহৃত হয় ন্যানোক্রিস্টাল।

 

 

মাহমুদা সুলতানা (মুনমুন) ২০১০ সালে ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি) থেকে কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ওপর পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। তারপর একই সালে নাসার গডার্ড এ গ্রাফিন (এক ধরনের পারমাণবিক স্কেল) নিয়ে কাজ করার সুযোগ পান।

 

 

মূলত এই গ্রাফিন নিয়ে কাজ করার সুবাদেই সুলতানার সৃজনশীলতার প্রতি মুগ্ধ হয় নাসা। এর ফলেই এ বছর নাসা কর্তৃপক্ষ মাহমুদাকে ইনোভেটর অব দ্য ইয়ার হিসেবে মনোনীত করে।

 

 

২০১০ সালে ক্যামিকেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পিএইচডি নেয়ার আগেই মাহমুদা সুলতানা যখন ইউনিভার্সিটি অব সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া থেকে কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে আন্ডার গ্রাজুয়েট করেছিলেন, তখন থেকেই কাজ শুরু করেছিলেন বিখ্যাত বেল ল্যাবরেটরিতে রিসার্চ অ্যাকাউন্টেন্ট হিসেবে।

 

 

মুনমুনের ছোটবেলা কেটেছে বাংলাদেশেই। তিনি জয়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছিলেন। তারপর রংপুরে কিন্ডার গার্টেনে পড়ালেখা করেন এবং পাবনা গার্লস স্কুলে ৯ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত অবস্থায় পরিবারের সঙ্গে আমেরিকা চলে যান।

 

 

বর্ষসেরা আবিস্কারক নির্বাচিত করার পাশাপাশি নাসার সাময়িকী ‘কাটিং এজ’র প্রচ্ছদ প্রতিবেদনও করা হয় তাকে নিয়ে। এ ছাড়া তিনি নাসার গ্রুপ অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড, জেমস ওয়েব টেলিস্কোপ অ্যাওয়ার্ড, ইয়ারলি ক্যারিয়ার অ্যাচিভমেন্ট মেডেল, অভ্যন্তরীন রিচার্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট, বেল ল্যাবরেটরি গ্র্যাজুয়েশন ফেলোশিপ, এনএসএফ গ্র্যাজুয়েটস ফেলোশিপ, মার্গারেট এইচ রোসেভ ফেলোশিপসহ বিভিন্ন পুরস্কারও অর্জন করেছেন।

 

 

প্রভাতবেলা/এমএ

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ সংবাদ