বুয়েট’র আবরার হত্যা মামলাঃশুনানী ২ সেপ্টেম্বর

প্রকাশিত: ১:৫৮ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০২০

বুয়েট’র আবরার হত্যা মামলাঃশুনানী ২ সেপ্টেম্বর

আদালত প্রতিবেদক,ঢাকা♦ বুয়েট এর ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার অভিযোগ গঠন শুনানীর দিন ধার্য্য করেছে আদালত। আগামী ২ সেপ্টেম্বর আলোচিত এ মামলার ভাগ্য নির্ধারণ হবে। মামলায় ২৫ আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানী হবে ঐদিন। রবিবার (৯ আগস্ট) ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য নতুন এ দিন ধার্য করেন। আদালতের পেশকার শামছুদ্দিন  বিষয়টি নিশ্চিত করেন। বাসস।

২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক ওয়াহিদুজ্জামান। অভিযুক্ত ২৫ জনের মধ্যে এজাহারভূক্ত ১৯ জন এবং তদন্তে প্রাপ্ত এজাহার বহির্ভূত ছয়জন। এজাহারভুক্ত ১৯ জনের মধ্যে ১৭ জন ও এজাহার বহির্ভূত ছয়জনের মধ্যে পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারদের মধ্যে আদালতে আটজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার জের ধরে আবরারকে হত্যা করা হয় বলে গ্রেফতারকৃতরা বিভিন্ন সময় জিজ্ঞাসাবাদে জানায়। হত্যা মামলায় অভিযুক্ত সবাই ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সক্রিয়ভাবে সম্পৃক্ত ছিল।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মেহেদী হাসান রাসেল, মো. অনিক সরকার, ইফতি মোশাররফ, মো. মেহেদী হাসান রবিন, মো. মেফতাহুল ইসলাম জিওন, মুনতাসির আলম জেমি, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভির, মো. মুজাহিদুর রহমান, মুহতাসিম ফুয়াদ, মো. মনিরুজ্জামান মনির, মো. আকাশ হোসেন, হোসেন মোহাম্মদ তোহা, মাজেদুর রহমান, শামীম বিল্লাহ, মোয়াজ আবু হুরায়রা, এ এস এম নাজমুস সাদাত, ইসতিয়াক আহম্মেদ মুন্না, অমিত সাহা, মো. মিজানুর রহমান ওরফে মিজান, শামসুল আরেফিন রাফাত, আসামি মোর্শেদ অমত্য ইসলাম ও এস এম মাহমুদ সেতু।

মামলার তিন আসামি এখনও পলাতক রয়েছে। তারা হলো- মোর্শেদুজ্জামান জিসান, এহতেশামুল রাব্বি তানিম ও মোস্তবা রাফিদ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 157
    Shares

সর্বশেষ সংবাদ