মসজিদের সেপটিক ট্যাংকে মাদ্রাসাছাত্রের লাশ

প্রকাশিত: ১২:৩৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩, ২০২৩

মসজিদের সেপটিক ট্যাংকে মাদ্রাসাছাত্রের লাশ
পটুয়াখালীর বাউফলে সেপটিক ট্যাংক থেকে আতিকুর রহমান আতিক (১২) নামে এক মাদ্রাসাশিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে উপজেলার কাছিপাড়া ইউনিয়নের পাকডাল মুন্সিবাড়ি জামে মসজিদের সেপটিক ট্যাংক থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

 

নিহত আতিক বাকেরগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপাশা ইউনিয়নের মধ্য জিরাইল গ্রামের সরোয়ার হোসেন সরদারের ছেলে। সে পাকডাল ফজলুর রহমান দারুল উলুম মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী ছিল।

 

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শনিবার ভোরে মাদ্রাসার সহপাঠী ও শিক্ষকরা ঘুম থেকে জেগে আতিকুল ইসলামকে কোথাও দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। একপর্যায়ে মাদ্রাসার অপর এক শিক্ষার্থী ইসমাইল শিক্ষকদের কাছে সেপটিক ট্যাংকে আতিকের লাশ লুকিয়ে রেখে আসার কথা জানায়। সন্ধ্যার পর ওই মসজিদের সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা খুলে আতিকের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ইসমাইলকে (১৮) আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

 

কাছিপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বলেন, ইসমাইল তার শিক্ষকদের কাছে আতিকুল ইসলামকে মেরে ফেলার কথা স্বীকার করেছে। কিন্তু আতিকুলের একার পক্ষে ওই সেপটিক ট্যাংকে লাশ লুকিয়ে রাখা সম্ভব নয়।

আরও পড়ুন  নাটোরে গাঁজাসহ দুই নারী গ্রেপ্তার

 

বাউফল থানার ওসি আরিফুল হক বলেন, আতিকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত শেষে আসল রহস্য বের হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

সর্বশেষ সংবাদ