মুসলিম নেতাকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী বানালেন জেলেনস্কি

প্রকাশিত: ৫:০৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৪, ২০২৩

মুসলিম নেতাকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী বানালেন জেলেনস্কি

বিশ্বভূবন ডেস্ক:

রাশিয়ার সঙ্গে দেড় বছরের বেশি সময় ধরে চলা যুদ্ধের পর প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওলেক্সি রেজনিকভকে সরিয়ে দিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে তিনি বেছে নিয়েছেন দেশটির অন্যতম মুসলিম রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারী রুস্তেম উমেরভকে।

 

তাকে নিয়োগের পর জেলেনস্কি বলেছেন যে, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে তার নতুন দৃষ্টিভঙ্গি প্রয়োজন। খবর বিবিসির

 

রেজনিকভের বিরুদ্ধে ঘুসকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ ছিল। রোববার রাতের ভিডিও বার্তায় জেলেনস্কি জানিয়েছেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রীর পদ থেকে রেজনিকভকে সরিয়ে দিয়েছেন তিনি।

 

জেলেনস্কি জানিয়েছেন, ”গত ৫৫০-এরও বেশিদিন ধরে চলা রাশিয়ার বিরুদ্ধে পুরোদস্তুর যুদ্ধের সময় রেজনিকভ প্রতিরক্ষামন্ত্রী ছিলেন। কিন্তু এখন যুদ্ধের ক্ষেত্রে নতুন দৃষ্টিভঙ্গি দরকার। সেনা ও সমাজের সঙ্গে নতুনভাবে যোগাযোগ দরকার।’

 

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘আমি উমেরভকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী করেছি। আমি আশা করি, পার্লামেন্ট তার নাম অনুমোদন করবে।’

 

গত জানুয়ারিতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিরুদ্ধে ঘুসের অভিযোগ উঠেছিল। তারপর প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী ইস্তফা দেন। এবার সরিয়ে দেওয়া হলো রেজনিকভকে। রেজনিকভ ইউক্রেনের সরকারি সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘আগামী বসন্তের মধ্যে ইউক্রেন ৫০টি এফ১৬ যুদ্ধবিমান মোতায়েন করতে পারবে।’

আরও পড়ুন  চীনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০৬, উদ্বেগে বিজ্ঞানীরা

 

তিনি জানিয়েছেন, ‘এই যুদ্ধবিমান নেদাল্যান্ডস, ডেনমার্ক ও নরওয়ে দেবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।’

 

জেলেনস্কি ১৭০টি এফ১৬ যুদ্ধবিমান চেয়েছিলেন। তিনি এই প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন, এফ-১৬ দিয়ে রাশিয়ায় আক্রমণ করা হবে না। ইউক্রেন নিজের প্রতিরক্ষার জন্য এই যুদ্ধবিমান ব্যবহার করবে।

 

কে এই উমেরভ
রাশিয়ার দখলকৃত ক্রিমিয়ার তাতার মুসলিম সম্প্রদায়ে এক শীর্ষ নেতা উমেরভ। তিনি ইউক্রেনের রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি তহবিলের পরিচালক ছিলেন। উমেরভ সোভিয়েত ইউনিয়নের উজবেকিস্তানে জন্মগ্রহণ করেন। শিশু বয়সে তিনি ক্রিমিয়ায় এসে পড়েন। ৪১ বছর বয়সী মুসলিম এ নেতা ২০০৪ সালে টেলিকম ব্যবসা শুরু করেন। ২০১৯ সালে তিনি পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচিত হন।

 

২০১৪ সালে রাশিয়া ক্রিমিয়া দখল করার পর তা উদ্ধারে ইউক্রেনের হয়ে কূটনৈতিক তৎপরতা চালান উমেরভ। তিনি তাতার সম্প্রদায়ের ঐতিহাসিক নেতা মুস্তাফা জেমিলেভের উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

ক্রিমিয়ার ২০ লাখ বাসিন্দার মধ্যে ১২ থেকে ১৫ শতাংশ তাতার সম্প্রদায়ের। রাশিয়া তাতার মুসলিম সংখ্যালঘুদের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন মেজলিসকে একটি চরমপন্থী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা দিয়ে নিষিদ্ধ করে।

আরও পড়ুন  কাশ্মীরে বন্দুকধারীর হামলা, পুলিশসহ নিহত ২

 

গত বছর জর্ডানের সংবাদমাধ্যম আম্মাননেটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে উমেরভ বলেন, আমরা ইউক্রেনে কোনো জাতিসত্তা বা ধর্ম নিয়ে কোনো অরাজকতা বা ইসলামবিদ্বেষ অনুভব করি না।

 

যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর উমেরভ বেসামরিক লোকজন সরানো ও রাশিয়ার সঙ্গে বন্দি বিনিময় চুক্তি আলোচনায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। এছাড়া কৃষ্ণসাগর দিয়ে ইউক্রেন-রাশিয়ার শস্যচুক্তির আলোচনাতেও উমেরভ প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

উমেরভ ১৯৯৯ সাল থেকে ছাত্র, জনসাধারণের এবং দাতব্য ইভেন্টে, ব্যক্তিগতভাবে এবং সংগঠনের অংশ হিসাবে অংশগ্রহণ করেছেন। তিনি ২০০৭ সালে ক্রিমিয়ান তাতার ফেলোশিপের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন, যা ইউক্রেনে ক্রিমিয়ান তাতারদের প্রতিনিধিত্ব করে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

সর্বশেষ সংবাদ