ম্যারাডোনা মানেই শৈশবের উন্মাদনা

প্রকাশিত: ১:৩৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৬, ২০২০

ম্যারাডোনা মানেই শৈশবের উন্মাদনা

মহসীন মাহমুদ:

প্রাইমারিতে পড়ার সময় ম্যারাডোনা ৮৬ লেখা খাতা কিনতাম দোকান থেকে , একটা মানুষ ওয়ার্ল্ডকাপে চুমু দিচ্ছে , বল নিয়ে দৌড়াচ্ছে এরকম ছবি থাকতো খাতার উপরে , সেই থেকে ম্যারাডোনা নামের সাথে পরিচয় , কিন্তু বাচ্চা ছিলাম – এর বেশি কিছু স্মৃতিতে নাই।

স্মৃতির শুরু সেই নব্বই সাল থেকে , ক্লাস সেভেনের ছাত্র , বিশ্বকাপের মৌসুম , এইডেড স্কুলের সামনের একটা দোকানে ভিউকার্ড বিক্রি করতো , শুরু হলো ভিউকার্ড কেনার নেশা ! ম্যারাডোনা , বুরুচাগা , ক্যানিজিয়া , পম্পিডো , গায়কোচিয়া , বাতিস্তুতা অনেক নাম ভুলেই গেছি , সাথে শুরু হলো বাসায় রাখা পত্রিকা থেকে ছবি কেটে সংগ্রহে রাখা , এই কাজে বন্ধু মাসুদ ছিলো নিত্য সঙ্গী , সে এক অদ্ভুত কল্পনার জগৎ , এক অন্যরকম আবেগ , আর্জেন্টিনা ম্যারাডোনা বলতে তখন এক অন্যরকম উম্মাদনা , আবাহনী মোহামেডান আবেগের চেয়েও যেনো আরো বেশি তীব্র  । এতই তীব্র ছিলো যে, পশ্চিম জার্মানির সাথে পেনাল্টি গোলে হেরে যাওয়ার পরে মামুন ভাই ( আমার বড়ো ভাই ) যখন পশ্চিম জার্মানির পক্ষে হৈ হৈ রৈ রৈ করছেন – আমার বুক ফেটে তখন কান্না আসছিলো , আব্বাও তখন আমাদের সাথে খেলা দেখছিলেন , আমার মনের কষ্ট আর চোখের পানি দেখে আব্বা সান্তনা দিলেন যে পেনাল্টিটা বিতর্কিত , এই ফাইনাল আবারো হবে ! আব্বার কথাতে সান্তনা খুঁজে ঘুমাতে গেলেও ম্যারাডোনার চোখের পানি আমাকে ঘুমাতে দেয়নি !

সকালে আমি আর মাসুদ মিলে পত্রিকা নিয়ে ঘাটাঘাটি – ফিফা এই ফাইনাল আবার আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিলো কি না ! কিন্তু পত্রিকার পাতায় তখন হেডিং – কোডেসালের কালো হাত জার্মানিকে জিতিয়ে দিলো !সেই ছবিটাও কেটে রাখলাম ! তারপর একটা করে দিন যায় আর আশায় থাকতাম ফিফা আবারো ফাইনাল আয়োজনের ঘোষণা দেবে !

কিন্তু কিসের কি ! অবুঝ আবেগ একদিন আস্তে আস্তে হালকা হয়ে এলো , আর ভারী হতে থাকলো ম্যারাডোনার প্রতি ভালোবাসা আর মুগ্ধতা !

সেই মুগ্ধতা এতই প্রবল ছিলো যে , স্মৃতিতে কোনোদিন ম্যারাডোনার হাতে যদিও ওয়ার্ল্ডকাপ দেখিনি , আর্জেন্টিনার হাতেও না , তবু মুগ্ধ হয়ে থাকি আর্জেন্টিনাতে , ম্যারাডোনাতে, পেলের কথা আমরা বইয়ে পড়তাম , আর ম্যারাডোনা ছিলেন আমাদের সময়ে মাঠে খেলতে থাকা এক জীবন্ত কিংবদন্তি , আমরা বড়ো হয়েছিলাম ম্যারাডোনার সময়ে , ম্যারাডোনার খেলা দেখে দেখে ,সেই ফুটবলের মহানায়কের বিদায়ে আসলেই খারাপ লাগছে , মনে পড়ছে সেইসব উম্মাদনার দিন গুলো, বিদায় ফুটবলের মহানায়ক।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ