সিকৃবিতে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

প্রকাশিত: ৬:০১ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৬, ২০২২

সিকৃবিতে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

সিকৃবিতে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন।

 

যথাযোগ্য মর্যাদায় সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। ২৬ মার্চ ভোর ৬ টা থেকেই শহীদমিনারে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গান ও স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের গান প্রচার শুরু হয়।

 

সূর্যোদয়ের সাথে সাথে প্রশাসন ভবন, সকল একাডেমিক ভবন, অফিস ও আবাসিক হলে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। ৮টা ৩০ মিনিটে প্রশাসন ভবনের সামনে থেকে একটি শোভাযাত্রা বের হয়। এর নেতৃত্ব দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ মতিয়ার রহমান হাওলাদার।

 

শোভাযাত্রায় রেজিস্ট্রার, পরিচালক (ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা), প্রক্টরসহ বিভিন্ন স্তরের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। শোভাযাত্রাটি সমগ্র ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে শহিদমিনারে গিয়ে শেষ হয়। এরপর জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির ব্যবস্থাপনায় শহীদমিনারে মহান মুক্তিযুদ্ধের শহিদদের স্মরণ করে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়।

 

ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ভাইস-চ্যান্সেলর, জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটি, ডিন কাউন্সিল, প্রভোস্ট কাউন্সিল, প্রক্টর কার্যালয়, ছাত্রলীগ, বিভিন্ন আবাসিক হল, শিক্ষক সমিতি, অফিসার পরিষদ, কর্মচারী পরিষদ, গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদ, সাদা দল, গণতান্ত্রিক অফিসার পরিষদ, কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ, ল্যাপ্স, বিভিন্ন অনুষদীয় ছাত্রসমিতি, কৃষ্ণচূড়া সাংস্কৃতিক সংঘ, সাংবাদিক সমিতি, প্রাধিকার, আমুস, বাঁধন, পাঠশালা একুশসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা-কর্মীবৃন্দ।

 

এর ঠিক পরপরই শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে শহীদমিনারে ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসের তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. সৈয়দ সায়েম উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. এম এম. মাহবুব আলমের সঞ্চলনায় সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ মতিয়ার রহমান হাওলাদার।

আরো পড়ুন:

http://স্বাধীনতা দিবসে সিলেট ছাত্রদলের শ্রদ্ধাঞ্জলি

সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় খেলার মাঠে শরীরচর্চা শিক্ষা বিভাগের ব্যবস্থাপনায় শিশুদের দৌড় প্রতিযোগিতা, শিক্ষার্থীদের প্রীতি ভলিবল ম্যাচ, শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের প্রীতি ভলিবল ম্যাচ ও পিলো পাসিং খেলা অনুষ্ঠিত হয়। বাদ জোহর মসজিদ কমিটির উদ্যোগে জাতির শান্তি-সমৃদ্ধি, দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের শহিদের আত্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

 

স্থানীয় মন্দিরেও পূজা উদযাপন কমিটি বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করেছে। জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির উদ্যোগে সন্ধ্যা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১নং গেট থেকে ২নং গেটের রাস্তা পর্যন্ত এবং নতুন ভেটেরিনারি ভবনের সামনের রাস্তা হয়ে কেন্দ্রীয় শহীদমিনার পর্যন্ত আলোক সজ্জ্বা করা হয়। বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ সংবাদ