চট্টগ্রামে মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬

প্রকাশিত: ১:১৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০২৩

চট্টগ্রামে মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬
চট্টগ্রামে মানসিক প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে তিন দফা ধর্ষণের ঘটনায় আরেক কিশোরীসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

 

গ্রেপ্তাররা হলো– ফেনীর দাগনভূঞা থানার পশ্চিম জয়নারানপুর গ্রামের তামজিদুল ইসলাম রহিম (২৩), কক্সবাজারের চকরিয়া থানার কাঁকারা গ্রামের নজরুল ইসলাম মিনু (৩৬), সদরঘাট থানার পশ্চিম মাদারবাড়ী মোগলটুলী এলাকার নজরুল ইসলাম ফেলন (২০), কুমিল্লার ভাঙ্গরা বাজার থানার রামচন্দ্রপুর গ্রামের জুনায়েদ হাসান ওরফে মুন্না (২২) ও একই থানার ডালপা গ্রামের মো. রাকিব (২২)। অন্যজন কিশোরী। গ্রেপ্তার সবাই নগরের সদরঘাট থানার মোগলটুলী এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকে। তারা পরস্পরের বন্ধু।

 

পুলিশ জানায়, ধর্ষণের শিকার কিশোরী মানসিক প্রতিবন্ধী। মা-বাবার মধ্যে বিচ্ছেদ হওয়ার পর থেকে সে দাদা-দাদির সঙ্গে থাকে। গত ৩০ নভেম্বর জুনায়েদ হাসান মুন্না ও টুলু নামে দু’জন ওই কিশোরীকে কৌশলে একটি বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করে এবং সেই ছবি তুলে রাখে। পরে ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে গত শনিবার নজরুল ইসলাম ফেলন ও রাকিব কিশোরীকে দ্বিতীয় দফা ধর্ষণ করে। পরদিন গ্রেপ্তার কিশোরী বেড়ানোর কথা বলে তাকে একটি কক্ষে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করে তামজিদুল ইসলাম রহিম ও নজরুল ইসলাম মিনু।

আরও পড়ুন  ৪ দিন পর বাংলাদেশির কিশোরের লাশ ফেরত দিল ভারত

 

এ ঘটনার পর রোববার কিশোরী অসুস্থবোধ করায় তার দাদি কী হয়েছে জানতে চান। তখন কিশোরী তাঁকে সব জানায়। পরে কিশোরীর বাবা সদরঘাট থানায় অভিযোগ দেন।

সদরঘাট থানার এসআই অর্ণব বড়ুয়া বলেন, কিশোরীর বাবার কাছ থেকে মৌখিক অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অভিযানে নামে পুলিশ। গ্রেপ্তার ছয় আসামি অভিযোগ স্বীকার করেছে। বাকি এক আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। গ্রেপ্তারদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

সর্বশেষ সংবাদ