ফেঞ্চুগঞ্জে খাল থেকে বালু উত্তোলন, হুমকির মুখে ঘর-বাড়ি

প্রকাশিত: ৫:৫১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০২১

ফেঞ্চুগঞ্জে খাল থেকে বালু উত্তোলন, হুমকির মুখে ঘর-বাড়ি
 এমরান আহমদ ফেঞ্চুগঞ্জ ♦ ফেঞ্চুগঞ্জে খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, হুমকির মুখে ঘর-বাড়ি সহ রাস্তাঘাট। সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে একটি মহল। উপজেলার ঘিলাছড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ আশিঘর গ্রামের মোমিনছড়া খালের বিভিন্ন স্থান থেকে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। এতে হুমকির মুখে পড়েছে ফসলি জমি, বসতবাড়ি রাস্তাঘাট সহ কালভার্ট।
বালু উত্তোলন বন্ধে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন এলাকাবাসী। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ঘিলাছড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ আশিঘর মোমিনছড়া খালের বিভিন্ন স্থানে প্রায় দুই বছর যাবত বালু উত্তোলন করছেন উপজেলার দক্ষিণ আশিঘর গ্রামের বাবুল মিয়ার স্ত্রী ফিরোজা বেগম ও বাবুল মিয়া সহ মানিক মিয়া,, সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বালু উত্তোলন করা হচ্ছে।
দক্ষিণ আশিঘর গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল মতিন, শাহান আলী, আরজু মিয়া, ছায়াদ আলী, গিয়াস উদ্দিন, এবাদুর রহমান, জালাল উদ্দীন, সহ প্রায় শতাধিক স্থানীয়রা বলেন ফিরোজা বেগম ও বাবুল মিয়া এবং মানিক মিয়া প্রায় দুই বছর যাবত এই খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে তাদেরকে আমরা গ্রামবাসী বাধা দিলেও তারা কর্নপাত করেনি।
খাল থেকে বালু উত্তোলন করার কারণে খালের উপরে একটা ব্রিজ প্রায় ধসে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে শুধুই তাই না বালু উত্তোলন করার কারণে রাস্তাঘাট ঘর-বাড়ী রয়েছে হুমকির মুখে আমরা এই বালু খেকুদের হাত থেকে দক্ষিণ আশিঘর গ্রামের রাস্তাঘাট, কালভার্ট সহ অত্র এলাকার ঘর-বাড়ী রক্ষার্থে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং স্থানীয় প্রশাসন বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।
ফেঞ্চুগঞ্জে খাল থেকে বালু উত্তোলন, হুমকির মুখে ঘর-বাড়ি

ফেঞ্চুগঞ্জে খাল থেকে বালু উত্তোলন, হুমকির মুখে ঘর-বাড়ি

দক্ষিণ আশিঘর গ্রামের আরেক প্রবাসী শাহান আলী বলেন আমি প্রবাস থেকে দশ দিন আগে দেশে এসে দেখি ফিরোজা বেগম ও বাবুল মিয়া এবং মানিক মিয়া আমাদের বাড়ির পাসের খাল থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছেন এতে আমি তাদেরকে বাধা দিলে তারা আমাকে হামলা এবং মামলার হুমকি দিয়ে যায় এবং এর পরের দিন ফিরোজা বেগম আমাদের হয়রানি করার জন্য ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে, আমরা দক্ষিণ আশিঘর গ্রামবাসী আমাদের বাড়ি-ঘর রাস্তাঘাট সহ কালভার্ট রক্ষার্থে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ জনপ্রতিনিধিদের আহবান জানাচ্ছি তারা জেনো সরেজমিন পরিদর্শন করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার অনুরোধ জানাচ্ছি।
এবিষয়ে খাল থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনকারী ফিরোজা বেগম ও মানিক মিয়ার সাথে আলাপ করলে তারা জানান আমরা দিনমজুর মানুষ আমাদের বর্তমানে কর্ম নাই এর জন্য বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে কোনরকম সংসার চালাই।
খাল থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন এর বিষয়ে ৩ নং ঘিলাছড়া ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কয়ছর আহমদ এ-র সাথে আলাপ করলে তিনি জানান, ফিরোজা বেগম ও বাবুল মিয়া সহ মানিক শুনেছি মোমিনছড়া খাল থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিলো পরে আমি তাদেরকে অনেক বার বাধা দিয়েছি কিন্তু তারা কেউ আমার কথা শুনেনি। তিনি বলেন ফিরোজা বেগম, বাবুল মিয়া সহ মানিক মিয়ার বিরুদ্ধে এর আগেও পাগলাছড়া খালের বালু অবৈধভাবে উত্তোলনের দায়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলাও হয়েছে কিন্তু তার পরেও থেমে নেই তারা।
ইউপি সদস্য কয়ছর আহমদ বলেন এই খাল থেকে বালু উত্তোলন নিয়ে ২০১৭ সালেও একটা মাডার হয়েছে তার পরেও এখনো অনেকেই খাল থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করার লোভ সামলাতে পারছেননা। এবিষয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাখি আহমেদ জানান এই খালে যেহেতু দুই/তিন বছর যাবত অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে তাহলে এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেম্বার কোথায় ছিলেন তারা কেনো এর আগে ব্যাবস্থা গ্রহণ করেনি বা আমাদেরকে জানায়নি । তারপরও এখন আমি যেহেতু অভিযোগ পেয়েছি, এখন আমি ওসি সাহেবের সাথে আলাপ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 132
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    132
    Shares

সর্বশেষ সংবাদ