ছাতকের হাওরে চলছে বোরো ধান কাটার উৎসব

প্রকাশিত: ১:৫৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০২১

ছাতকের হাওরে চলছে বোরো ধান কাটার উৎসব

প্রতিনিধি, সুনামগঞ্জ:

সুনামগঞ্জের ছাতকে এখন বোরো ধান কাটার উৎসবে মেতে উঠেছেন কৃষকরা। এখানের হাওরে-হাওরে পাকা বোরো ধান বাতাসে দোল খাচ্ছে। পাকা বোরো ধানের মৌ-মৌ গন্ধে কৃষকদের মন জুড়িয়ে যাচ্ছে। উপজেলার সরবত্রই কৃষকদের মুখে হাসির ঝিলিক। এখানে বোরো ফসলের বাম্পার ফলন হয়েছে।বন্যা-বৃষ্টি না থাকায় বোরো ধান কাটা, মাড়াইয়ের সুবিধা পেয়েছেন কৃষকরা। গত কয়েক বছর ধরে ছাতকে

কৃষি বিভাগের উদ্যোগে আগাম জাতের বোরো ধান চাষাবাদ হওয়ায় কিছু-কিছু এলাকার পাকা ধান আগে-ভাগেই কাটা, মাড়াই-ঝাড়াই শুরু হয়। ক’দিন ধরে এখানে পুরোদমে বোরো ধান কাটা শুরু হয়েছে। ছাতকের কৃষক-কিষাণীরা ধান কাটা, মাড়াই-ঝাড়াই নিয়ে এখন ব্যস্ত্ম সময় পার করছেন।

ছাতক উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় ছোট-বড় বিল-হাওর রয়েছে ৬৩টি। চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় বোরো চাষাবাদ হয়েছে ১৪ হাজার ৮শ ৩০ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে উপসী জাতের ১১ হাজার ৫১০ হেক্টর, হাইব্রিড জাতের ৩ হাজার ২৩০ হেক্টর ও স্থানীয় জাতের বোরো ধান ৯০ হেক্টর জমিতে চাষাবাদ করা হয়েছে।

সরেজমিনে বিভিন্ন হাওর ঘুরে দেখা গেছে ধান কাটার এক মনোরম দৃশ্য। হাওরে বোরো ধান কাটা ও মাড়াইয়ে ব্যস্ত্ম কৃষকরা। পাশপাশি কিষাণীরা ধান ঝাড়াই করে শুকিয়ে গোলায় তুলতে ব্যস্ত্ম সময় পার করছেন। হাওরে ধানের খলায় কাজ করছেন কৃষক-শ্রমিক, নারী ও শিশুরা। কোনো কোনো হাওরে ধান কাটা, মাড়াই চলছে মেশিনের মাধ্যমে। আবার কোনো এলাকায় শ্রমিকরা ধান কাটছে, মাড়াই-ঝাড়াই করছেন সনাতন পদ্ধতিতে। কৃষক-শ্রমিকরা কেউ ক্ষেত থেকে ধান কেটে খলায় টানছে, কেউ রোদে ধান শুকানোর কাজ করছে, কেউ মেশিন দিয়ে ধান কাটা-মাড়াই এবং কেউ কেউ সনাতন পদ্ধতিতে ধান মাড়াই-ঝাড়াইর কাজে করছেন।

স্থানীয় একাধিক কৃষক জানান, বোরো ধান কাটা শুরু হওয়ার পর এখানে কোনো শিলাবৃষ্টি হয়নি। জলাবদ্ধতায় কিছু ফসলের ক্ষতি হলেও এবার বোরোর ফলন ভালো হয়েছে। কালারুকা ইউনিয়নের কৃষক আব্দুস সত্তার জানান, তার ৬ বিঘা জমিতে বোরো চাষাবাদ করা হয়েছে। ফলনও ভালো হয়েছে। গত মৌসুমের তুলনায় এবার তিনি বেশি ফসল গোলায় তুলতে পারবেন। কৃষক তৈমুছ আলী, আজাদ মিয়া, শাহীন আহমদ, আখলুছ আলী, মানিক মিয়া, আরশ আলী জানান, অতিবৃষ্টি বা খরায় এ মৌসুমে বোরো ফসলের কোনো ক্ষতি হয়নি। প্রকৃতি অনুকুলে থাকলে স্বপ্নের সোনালী ফসল এখানে যথাসময়ে গোলায় তুলতে পারবে বলে তারা আশাবাদী।

ছাতক উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ তৌফিক হোসেন খান জানান, চলতি মৌসুমে ছাতকে বোরো ধানের ফলন লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে। দু্ সপ্তাহ পূরবেই কৃষকদের উৎসাহিত করতে আনুষ্ঠানিকভাবে উপজেলার চৌকা হাওরে বোরো ধান কাটার উৎসব করা হয়েছে। এখানে আগাম জাতের কিছু বোরো ধান কাটা শেষ হলেও এখন সকল বিল-হাওরে পুরোদমে ধান কাটা, মাড়াই-ঝাড়াই চলছে। এক সপ্তাহ বা ১০ দিনের মধ্যে এখানের বোরো ধান কাটা শেষ হয়ে যাবে।

উপজেলা নিরবাহী কর্মকর্তা মামুনুর রহমান জানান, উপজেলার নাইন্দার হাওর, ফাটার হাওর সহ বড়-বড় হাওরগুলোর পাকা বোরো ধান অর্ধেক কাটা সম্পন্ন হয়েছে। দ্রুত ধান কাটার জন্য কৃষকদের আগ থেকেই পরামর্শ দেয়া হয়েছে। শ্রমিক সংকটের কারণে চলতি মৌসুমে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে কৃষকের মাঝে কৃষি বিভাগের উদ্যোগে ভর্তুকি মূল্যে ১১টি কম্বাইন হারভেস্টার (ধান কাটার মেশিন) দেয়া হয়েছে। কৃষকদেরকে দ্রুত বোরো ধান কেটে গোলায় তুলতে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলায় উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাবৃন্দও মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি আশাবাদী সঠিক সময়ের মধ্যেই এখানের কৃষকরা বোরো ধান ঘরে তুলতে পারবেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 16
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    16
    Shares

সর্বশেষ সংবাদ