ছাত্রাবাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছালো

প্রকাশিত: ২:৩৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০২১

ছাত্রাবাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছালো

প্রভাতবেলা প্রতিবেদক:

সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মামলায় বাদিপক্ষ স্বাক্ষী হাজির না করায় পিছিয়েছে মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ। চাঞ্চল্যকর এ মামলার পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ২৭ জানুয়ারি নির্ধারণ করেছেন বিচারক।

রোববার (২৪ জানুয়ারি) সকাল ১১ টায় সিলেটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মোহিতুল হকের আদালতে হাজির করা হয় মামলার ৮ আসামিকে।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল পিপি রাশিদা সাঈদা খানম জানান, বাদিপক্ষের আইনজীবী সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও ছিনতাই মামলা এক‌ই আদালতে একসাথে বিচার কাজ শুরু করার আবেদন করেন। বিচারক তা খারিজ করে আগামী তারিখে স্বাক্ষী হাজির করার নির্দেশ দেন।

গত ১৭ জানুয়ারি অভিযোগ গঠন করে আজ গ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করেছিলেন আদালত।

এর আগে গত ৩ ডিসেম্বর সিলেটের মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আবুল কাশেমের আদালতে ৮ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক ইন্দ্রনীল ভট্টাচার্য।

এতে সাইফুর রহমানকে প্রধান করে ছয় জনের বিরুদ্ধে সরাসরি ধর্ষণে জড়িত থাকা এবং অপর দুই জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণে সহায়তার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর রাতে সিলেটের বালুচর এলাকার এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হন এক গৃহবধূ। কলেজের গেট থেকে স্বামীসহ তাকে ধরে ছাত্রাবাসে এনে স্বামীকে বেঁধে নারীকে ধর্ষণ করে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 13
    Shares

সর্বশেষ সংবাদ