মহাপরিচালক নির্বাচিত হবার পরপরই মুফতি আব্দুস সালাম চাটগামি’র ইন্তেকাল

প্রকাশিত: ৮:১৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২১

মহাপরিচালক নির্বাচিত হবার পরপরই মুফতি আব্দুস সালাম চাটগামি’র ইন্তেকাল
হাটহাজারী মাদ্রাসার  মহাপরিচালক নির্বাচিত হবার পরপরই মাওলানা আব্দুস সালাম চাটগামি’র আকস্মিক ইন্তেকাল। কওমি অঙ্গনে শোক। রাত ১১টায় নামাজে জানাযা। মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, চট্টগ্রাম ব্যুরো।
চট্টগ্রামের দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসার প্রধান মুফতি (মুফতিয়ে আযম) ও নবনির্বাচিত মহাপরিচালক মুফতি আব্দুস সালাম চাটগামী (৮০) ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। আজ বুধবার বেলা সাড়ে এগারটার দিকে তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। মুফতি আবদুস সালাম চাটগামী দীর্ঘদিন যাবত শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন।
বুধবার রাত ১১ টায় মরহুমের জানাযার নামাজ মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হবে। হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদরীস তাঁর জানাযা ও মৃত্যুর বিষয়টি বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে আল্লামা শাহ আহমদ শফির কবরের পাশে হুজুরকে দাফন করা হবে ।
এর আগে বুধবার সকাল ১০ টার দিকে বহুল কাঙ্খিত হাটহাজারী মাদরাসার শুরা কমিটির বৈঠকে  উপমহাদেশের প্রখ্যাত আলেম মুফতি আব্দুস ছালাম চাটগামীকে মহাপরিচালক ঘোষণা করা হয়। তার পরই শারিরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে মুফতি আব্দুস সালামের।
আগে থেকে শারীরিক অসুস্থতাবোধ করতে থাকা আব্দুস ছালামকে হাসপাতালে নেয়া হয়। বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
সুত্রে জানা গেছে মাওলানা আব্দুস সালাম চাটগামি মাদ্রাসার মহাপরিচালকের দায়িত্ব নিতে আগেই অনীহা প্রকাশ করে ছিলেন, তিনি এক পর্যায়ে বলেছিলেন আমাকে মহাপরিচালকের দায়িত্ব দেয়া হলে আমি পদত্যাগ করে মাদ্রাসা থেকে চলে যাব। এ ঘটনা উল্লেখ করে হেফাজতের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর ইদ্রিস, বলেন হুজুর আমাদের এতিম করে না ফেরার দেশেই চলে গেলেন, আল্লাহপাক হুজুরকে জান্নাতের উচু মাকাম দান করুন।
মৃত্যুকালে মুফতি আব্দুস সালাম চাটগামির বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। তার গ্রামের বাড়ি দক্ষিন চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায়। তিনি ২ স্ত্রী , ৭ ছেলে ও ৪ কন্যা সন্তান ও নাতি নাতনি সহ অসংখ্য গুণগ্রাহি রেখে গেছেন।
তার ৭ পুত্র সন্তানের সবাই ভাল আলেম । শুরা কমিটির বৈঠকে মুফতি আব্দুস ছালামকে মহাপরিচালক করার পাশাপাশি মাওলানা ইয়াহইয়াকে সহাকারী পরিচালক এবং মাওলানা শেখ আহমদকে প্রধান শায়খুল হাদিস ও আল্লামা শোয়াইব জমীরীকে শায়খুল হাদিস করার সিদ্ধান্ত হয়।
সুত্রে জানা গেছে, আজ বুধবার সকালে শুরা কমিটির বৈঠকে মাদারাসার মহাপরিচালক হিসেবে মুফতি আব্দুস ছালাম চাটগামীকেই বেছে নেওয়া হয় আল্লামা শাহ আহমদ শফীর যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে। বুধবার সকাল ১০টার দিকে মাদ্রাসার সুরা সদস্য ও হেফাজতের আমির আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরীর সভাপতিত্বে শুরা কমিটির বৈঠক শুরু হয়। তবে শারীরিক অসুস্থতার কারণে বৈঠকে না গিয়ে নিজ কক্ষে অবস্থান করছিলেন মাওলানা আব্দুস ছালাম চাটগামি। বেলা সোয়া ১১টার দিকে তিনি হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়েন। এরপর তাকে একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে নিকটবর্তী হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। অ্যাম্বুলেন্স করে হাসপাতাল নেওয়ার পথেই তিনি ইন্তেকাল করেন বলে সুত্রে প্রকাশ।
প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর হাটহাজারী মাদরাসার দীর্ঘ মেয়াদে দায়িত্বে থাকা মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী ইন্তেকাল করেন। এরপর মুফতী আব্দুস সালাম চাটগামীকে প্রধান করে আল্লামা শেখ আহমদ ও মাওলানা ইয়াহিয়াকে সদস্য করে একটি পরিচালনা পরিষদ গঠন করা হয়।
এরপর গত ১৯ আগস্ট হেফাজত আমির ও হাটহাজারী মাদ্রাসার শায়খুল হাদিস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী ইন্তেকাল করেন। এর আগে আজ বুধবার সকালে হাটহাজারি মাদরাসার মহাপরিচালক, সহযোগী ও সহকারী মহাপরিচালক, শিক্ষা সচিব, শায়খুল হাদিস নির্বাচনে শুরা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। শুরা কমিটির বৈঠককে কেন্দ্র করে হাটহাজারী মাদরাসায় কড়া নিরাপত্তা বলয় তৈরি করে কর্তৃপক্ষ। তবে মুফতি আব্দুস ছালামের আকষ্মিক মৃত্যুর খবরে মাদ্রাসার চিত্র পাল্টে যায়। মাদরাসার হাজার হাজার ছাত্র-শিক্ষক কান্নায় ভেঙে পড়েন। পুরো মাদ্রাসা জুড়েই অভিভাবক হারানোর শোক বইছে এখন।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 41
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    41
    Shares

সর্বশেষ সংবাদ