অন্যপুরুষ জেনে প্রবাসী স্বামীর সাথে পরকীয়া

প্রকাশিত: ৩:৩৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০২০

অন্যপুরুষ জেনে প্রবাসী স্বামীর সাথে পরকীয়া
প্রভাতবেলা প্রতিবেদক♦ স্বামী প্রবাসে ।  স্ত্রী জড়িয়ে পড়লেন পরকীয়া প্রেমে। সেই প্রেমিকের নাম ‘রাজা’। পরকীয়ায় মজে গেলেন গৃহবধূ। প্রেমিকের ইমুতে যৌন আবেদনময়ী ছবি ভিডিও পাঠাতেন। স্বামীকে ডিভোর্স দিয়ে ‘রাজা’র ‘রাণী’ হবেন। এমন কথাবার্তা ফাইনাল। এবার সাক্ষাতপর্ব। পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে দিনক্ষণ, ভেন্যু ঠিক করলেন। কাঙ্খিত সময়ে নির্ধারিত স্থানে এলেন প্রেমিক গৃহবধূ। কিন্তু এ- যে প্রেমিক ‘রাজা’ নয়। সে তো তার বিয়ে করা স্বামী!
পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে স্ত্রী দেখলো তার প্রবাসী স্বামীই সেই প্রেমিক ৷
কুমিল্লা জেলার হোমনা থানার মণিপুর গ্রামের জিহান মিয়া একই উপজেলার আয়েশা বেগমকে বিয়ে করেন। ২০১৮ সালের ৫ সেপ্টেম্বর পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়ের মাত্র দেড় মাস পরে সংসারের স্বচ্ছলতা ফেরাতে জিহান পাড়ি জমান ওমানে। ফলে আয়েশা স্বামীর বাড়ি থেকে তার বাবার বাড়িতে চলে যান।

প্রবাসে গিয়ে স্বামী নিজের স্ত্রীকে পরীক্ষা করার জন্য ‘রাজা’ নামে একটি ‘ফক’ ফেসবুক আইডি খুলেন। সেই আইডি দিয়েই নিজের স্ত্রীর সঙ্গে নিজেকে একজন ভিন্ন পুরুষ হিসাবে পরিচয় দিয়ে কথা বলা শুরু করেন৷
জিহানের ভাষ্যমতে, তার অনুপস্থিতিতে পরকীয়ায় মেতে ওঠেন আয়েশা। পরে নিজের পরিচয় গোপন করে প্রেমিক সেজে ‘রাজা’ নামে আয়েশার সাথে প্রেম শুরু করেন তিনি। প্রেমের সুবাদে ইমুতে আয়েশা নানা যৌন আবেদনমূলক ছবি পাঠান।
আয়েশার বাবা ব্যবসার কারণে পরিবার নিয়ে নারায়ণগঞ্জে বসবাস করে। কিন্তু আয়েশা তার নানা বাড়ি কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে আছে বলে জানান  ‘রাজা’কে।
এরই মধ্যে একদিন ‘রাজা’কে আয়েশা জানান, তার আগে বিয়ে হয়েছিল। আগের স্বামীকে তিনি ডিভোর্স দিবেন এবং রাজাকেই বিয়ে করবেন।
কথাটি শুনে  মনে মারাত্মক আঘাত পান  জিহান।
এদিকে দীর্ঘ দেড় বছর পর স্বামী ‘জিহান’ দেশে ফিরতে চাইলে আপত্তি জানান স্ত্রী। এক সময় স্বামীর(জিহানের) ফোন রিসিভ করাও বন্ধ করে দেন আয়েশা।
অবস্থা বেগতিক দেখে গত  ২৮ নভেম্বর কাউকে না জানিয়ে দেশে ফিরে আসেন জিহান । এর একদিন পর কুমিল্লা আদালতে স্ত্রীসহ ৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করে জিহান।
পরে র‌্যাব’র পরামর্শ নিয়ে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর সেতুর প্রান্ত ভৈরবের মানিকদীতে প্রেমিক ‘রাজা’ রুপে দেখা করতে যান। হাতেনাতে ধরা খেয়ে প্রথমে বেশামাল হয়ে পড়েন স্ত্রী আয়েশা।
আয়েশাকে নিয়ে আসা হয় ভৈরব র‌্যাব ক্যাম্পে। সেখানে আয়েশা ও জিহানের পরিবারের লোকজন মিলে মীমাংসা করে দেয়। জীবনের আর এমন হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেয় আয়েশা। পরে তাকে জিহান তার বাড়িতে নিয়ে যায়।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে তা মুহূর্তই ভাইরাল হয়ে যায়। ভাইরাল হওয়া প্রসঙ্গে জিহান বলেন, আসলে এমন হবে কোনোদিন ভাবিনি। দেরিতে হলেও আমার স্ত্রী তার ভুল বুঝতে পেরেছে। আমরা পেছনের সব ভুলে সংসারে সুখী হতে চাই।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 24
    Shares

সর্বশেষ সংবাদ