জুড়ীতে বন্যার স্রোতে তলিয়ে যাবার দু’দিন পর লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ৮:৫২ অপরাহ্ণ, জুন ২৪, ২০২২

জুড়ীতে বন্যার স্রোতে তলিয়ে যাবার দু’দিন পর লাশ উদ্ধার

এম রাজু আহমেদ, জুড়ী♦ মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় বন্যার পানিতে তলিয়ে যাবার দু’দিন পর রণ রিকমন (৪০) নামের এক চা শ্রমিকের লাশ উদ্ধার হয়েছে। শুক্রবার (২৪ জুন) সকাল ৭টায় চা শ্রমিক রণ রিকমনের লাশ ভেসে উঠে। রণ রিকমনের বাড়ি উপজেলার ধামাই চা বাগানের নতুন টিলা এলাকায়।

সরেজমিন এলাকার লোকজন ও স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, অতিবৃষ্টি ও ভারতীয় পাহাড়ি ঢলে ধামাই বাগানের বিভিন্ন নিচু এলাকা প্লাবিত হয়ে গেছে। রণ রিকমন বাড়িতে যাওয়ার রাস্তায় কোমর সমান পানি। আর রাস্তার দুই পাশের নিচু জমিতে ১০ থেকে ১২ ফুট পানি। বুধবার রাত নয়টার দিকে স্থানীয় একটি দোকান থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় কিছু জিনিস কিনে বাড়ি ফিরছিলেন। অপেক্ষা করে তিনি নৌকা না পেয়ে হেঁটে রওনা হন পানি দিয়ে। একপর্যায়ে বাড়ির সামনে তিনি ডুবে যান।

এ সময় রণ রিকমনের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে সাঁতার কেটে এসে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাঁর সন্ধান পাননি। পরে বৃহস্পতিবার কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিস খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা রণ রিকমনের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অনেক খোঁজাখোঁজির পর উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে সিলেটে ডুবরী দলকে খবর দিলে বেলা তিনটায় দিকে উদ্ধারে নামেন ডুবরী দল।

পরে সন্ধ্যা পর্যন্ত চেষ্টা চালিয়ে উদ্ধারকারী দল অভিযান সমাপ্ত করে চলে যায়। কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা সোলায়মান হোসেন বলেন, নিখোঁজ ব্যক্তির সন্ধানে আমাদের দুটি টিম ৬ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করতে ব্যর্থ হয়।

এবিষয়ে জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ সঞ্জয় চক্রবর্তী সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি প্রভাতবেলাকে বলেন, রণ রিকমনের লাশ আজ শুক্রবার সকাল ৭টায় পানিতে ভেসে উঠলে খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করি। পরে পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় স্থানীয় ইউপি সদস্য, চেয়ারম্যান ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে লাশটি পরিবারের কাছে হস্থান্তর করা হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সর্বশেষ সংবাদ